ঝিনাইদহ অজপাড়া গাঁয়ে ব্যতিক্রমধর্মী বৈশাখ বরণ

ঝিনাইদহ অজপাড়া গাঁয়ে ব্যতিক্রমধর্মী বৈশাখ বরণ

ঝিনাইদহ অজপাড়া গাঁয়ে ব্যতিক্রমধর্মী বৈশাখ বরণ

জাহিদুর রহমান তারিক, ঝিনাইদহ : গৃহস্থ বাড়ির বিরাট একটি উঠোন বানানো হয়েছে গ্রামের হাই স্কুলের মাঠকে। সেখানে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে গ্রাম থেকে হারিয়ে যাওয়া ঐহিত্য। আছে সাফদার ডাক্তারের চেম্বার। সেখানে রোগী দেখছেন পল্লী চিকিৎসক গোলাম রহমান ওরফে চেনা ডাক্তার। আছে আসমানীদের জরাজীর্ন বাড়ি। জসিম উদ্দীনের কবর কবিতার চিত্র ফুটিয়ে সেখানে ক্রন্দনরত রয়েছে নাতি পশ্চিমপাড়ার দাউদ হোসেন। আদর্শ কৃষকের সংসার। সেই সংসারে কুলায় ধান ও চাল ঝাড়ছে বধুরা। গ্রাম্য সংসারের সব কিছুই সেখানে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। পালকি চড়ে নতুন বউ যাচ্ছে স্বামীর ঘরে। ঢেঁকিতে ধান ভানছে গ্রামের বধুরা। 

গ্রাম বাংলার চিরচরিত নিয়মে যাতা ঘুরিয়ে ডাল বানানো হচ্ছে। জ্যোতিন্দ্র মোহন বাগচির কাজলা দিদির কবিতার মতোই স্মৃতি ফুটয়ে তোলা হয়েছে পুকুর, বাতাবি লেবু ও বাঁশ বাগান বানিয়ে। আছে পান্তা ইলিশ ও বিষধর সাপের খেলা। সে এক অসাধারণ দৃশ্য। সকাল থেকে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার বংকিরা সরকারী প্রাইমারি ও হাই স্কুলের স্কুলের শিশু মেয়েদের বৈশাখী পোশাক পরে ঘুরে বেড়ানোর দৃশ্য বৈশাখী বরণের এই অনুষ্ঠানকে আরো প্রানবন্ত করে তোলে। বেলা ১০টার দিকে বংকিরা, ধোপাবিলা, হাজরা, আসাননগর, গোবিন্দুপর, জীবনা ও মোহাম্মদপুর গ্রামের মানুষদের নিয়ে বর্নাঢ্য র‌্যালি বের হয়। 

এলাকার কৃতি সন্তান ও বিশিষ্ট সাংবাদিক আসিফ ইকবাল কাজল, সাধুহাটী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কাজী নাজির উদ্দীন, বংকিরা হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক খোশনুর রহমান, গোবিন্দপুর সরকারী প্রাইমারির প্রধান শিক্ষক আব্দুর রশিদ, হাজরা সরকারী প্রাইমারির প্রধান শিক্ষক সিদ্দিকুর রহমান, মিঠু জোয়ারদার ও ডালিম হোসেনসহ শত শত মানুষ র‌্যালিতে যোগদান করেন। আর ব্যতিক্রমধর্মী বর্ষ বরণের এই বিশাল কর্মযজ্ঞ সম্পন্ন করেন বংকিরা পুলিশ ক্যাম্পের আইসি কাজী বায়োজিদ আহম্মেদ। মুলত তার পরিকল্পনায় গ্রাম বাংলার এই চিত্র ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। 

পাঠকের মন্তব্য