জাতীয় স্টেডিয়ামে বঙ্গমাতা টুর্নামেন্টের জন্য প্রস্তুতি

জাতীয় স্টেডিয়ামে বঙ্গমাতা টুর্নামেন্টের জন্য প্রস্তুতি

জাতীয় স্টেডিয়ামে বঙ্গমাতা টুর্নামেন্টের জন্য প্রস্তুতি

২২শে এপ্রিল বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে শুরু হচ্ছে বঙ্গমাতা অনূর্ধ্ব-১৯ আন্তর্জাতিক গোল্ডকাপ ফুটবল আসর। ৬ দেশের অংশগ্রহণে আয়োজিত এই টুর্নামেন্টের শিরোপায় চোখ রেখেই কঠোর অনুশীলন করে যাচ্ছে বাংলাদেশ নারী ফুটবল দল। দক্ষিণ এশিয়ায় বঙ্গমাতা অনূর্ধ্ব-১৯ গোল্ডকাপই মেয়েদের নিয়ে প্রথম আন্তর্জাতিক ফুটবল টুর্নামেন্ট। বাংলাদেশ, সংযুক্ত আরব আমিরাত, কিরগিজস্তান, লাওস, তাজিকিস্তান ও মঙ্গোলিয়া অংশ নিচ্ছে প্রথমবারের মতো আয়োজিত এই টুর্নামেন্টে। ‘বি’ গ্রুপে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ সংযুক্ত আরব আমিরাত ও কিরগিজস্তান। 

টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী বা সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে বাফুফে। ‘আমরা উদ্বোধনী বা সমাপনী যে কোনো অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীকে পেতে চাই। সেভাবেই তাকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী উদ্বোধনী না নাকি সমাপনীতে থাকবেন তা এখনো নিশ্চিত করেনি তার কার্যালয়’- বলেন বাফুফে সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিন।

এদিকে টুর্নামেন্টকে সামনে রেখে কঠোর অনুশীলন ব্যস্ত বাংলাদেশ দল। অন্য সবাই যখন নতুন বছরের প্রথম দিনে নানাভাবে আনন্দে মেতেছেন তখন এ সময়টা মাঠে অনুশীলনে কাটিয়েছেন কিশোরী ফুটবলাররা। সকাল-দুপুর অনুশীলন করিয়ে মেয়েদের বঙ্গমাতা টুর্নামেন্টের জন্য প্রস্তুত করছেন কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন। টুর্নামেন্টের প্রস্তুতি নিয়ে ছোটন বলেন,‘সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের পর আমরা কোনো ফুটবলারকে ছুটি দেইনি। এমনি পহেলা বৈশাখের দিনও দলকে দু’বেলা অনুশীলন করিয়েছি। 
প্রস্তুতিতে আমরা কোনো প্রকার ঘাটতি রাখতে চাই না। টুর্নামেন্টে প্রচার প্রচারণায় ঘাটতি রাখছে না বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। 

প্রচারণায় বাড়তি উন্মাদনা যোগ করতে ঢাকায় এসেছিলেন কলম্বিয়ার দুই শীর্ষ নারী ফুটবলার জেসিকা হুরতাদো ও ক্যাথরিন ফ্যাবিওলা কাস্ত্রো। নারী ফুটবল দলের শুভেচ্ছা দূত হিসেবে যোগ দিয়েছেন দেশের জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসান। টুর্নামেন্টের জন্য একটি থিম সং প্রকাশ করেছে স্পন্সর প্রতিষ্ঠান কে-স্পোর্টন। দেশের নারী ফুটবলারদের সংগ্রামী জীবন নিয়ে তৈরি করা হয়েছে গানটির আবহ।

পাঠকের মন্তব্য