আলট্রা মর্ডান হাসপাতালের সাবেক পরিচালকের লালসার শিকার নারীরা !

আলট্রা মর্ডান হাসপাতালের সাবেক পরিচালকের লালসার শিকার নারীরা !

আলট্রা মর্ডান হাসপাতালের সাবেক পরিচালকের লালসার শিকার নারীরা !

কুমিল্লা নাঙ্গলকোট উপজেলার পৌর সদরে অবস্থিত নাঙ্গলকোট আলট্রা মর্ডান হাসপাতালের সাবেক পরিচালক ও শেয়াহোল্ডার আব্দুল কুদ্দুস ভুঁইয়ার লালসার শিকার হওয়া কয়েক নারীর অন্তরঙ্গ ছবি ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে।

ছবিতে দেখে যাচ্ছে, হাসপাতালের একটি কক্ষে কয়েকজন নারীর সাথে অন্তরঙ্গ অবস্থায় চেয়ারে বসে আছেন আর সে দৃশ্য সামনে কেউ একজন ক্যামেরাবন্দী করেছে।

জানা যায়, আব্দুল কুদ্দুস ভুঁইয়া নাঙ্গলকোট আলট্রা মর্ডান হাসপাতালে দীর্ঘ ৩ বছর যাবত পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। পাশাপাশি তিনি এলাকায় সালিশদার হিসাবেও পরিচিত। আর এ সুযোগকে কাজে লাগিয়ে নানাভাবে তিনি নারীদের জিম্মি করে রাখেন। তার এসব অপকর্ম সমাজের সামনে উঠে আসার পর হাসপাতাল পরিচালনা পর্ষদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী তাকে পরিচালক পদ থেকে অব্যহতি দিয়ে সদস্য হিসেবে রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছে বর্তমান কর্তৃপক্ষ। তবে খুব শীঘ্রই তাকে সদস্য পদ থেকেও অব্যহতি দেয়া হবে।

এব্যাপারে অভিযুক্ত আব্দুল কুদ্দুস ভুঁইয়া বলেন,সম্মান নষ্ট করার জন্য দুষ্টুমি করে তোলা এসব ছবি কিছু অসাধু মহল ভাইরাল করেছে। কোন নারী কেলেঙ্কারীর সাথে জড়িত নয় বলেও দাবি করেন আব্দুল কুদ্দুস ভুঁইয়া।

আলট্রা মর্ডান হাসপাতালের বর্তমান পরিচালক হূমায়ুন কবীর জানান, আব্দুল কুদ্দুস ভুঁইয়ার নারী ঘটিত এসব কুকর্মের পর্দা ফাঁস হওয়ার পর তাকে সবার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী তাকে হাসপাতালের পরিচালক পদ থেকে সরিয়ে নেয়া হয়। তবে কারো ব্যক্তিগত অপকর্মের দায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ নিবে না। হাসপাতালের কল্যাণে অচিরেই আব্দুল কুদ্দুসকে হাসপাতালের সকল কার্যক্রম থেকে অব্যহতি দেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

পাঠকের মন্তব্য