সৌদি বন্দিশিবিরে আটক রোহিঙ্গাদের ওপর নির্যাতন

সৌদি বন্দিশিবিরে আটক রোহিঙ্গাদের ওপর নির্যাতন

সৌদি বন্দিশিবিরে আটক রোহিঙ্গাদের ওপর নির্যাতন

শুমাইসি বন্দি শিবিরে আটক রোহিঙ্গা মুসলমানদের বেশিরভাগ বাংলাদেশের পাসপোর্ট নিয়ে কাজের সন্ধানে সৌদি আরব গিয়েছিলেন। অবশ্য তাদের কারো কারো কাছে ভুটান, ভারত, পাকিস্তান বা নেপালের পাসপোর্ট পাওয়া গেছে।

‘মিডল ইস্ট আই’ জানিয়েছে, সৌদি আরবের পশ্চিমাঞ্চলীয় বন্দরনগরী জেদ্দার ‘শুমাইসি’ বন্দিশিবিরের প্রায় ৬৫০ বন্দি এই অনশন ধর্মঘট শুরু করেছেন। গত কয়েক মাসের মধ্যে রোহিঙ্গারা এই নিয়ে কয়েকবার অনশন ধর্মঘট পালন করলেন।

এসব বন্দির বেশিরভাগকে ২০১২ সাল থেকে বিনা বিচারে আটক রেখেছে সৌদি সরকার। এরইমধ্যে অনেক বন্দি হতাশায় ভুগে মানসিক রোগে আক্রান্ত হয়ে পড়েছেন।

শুমাইসি বন্দি শিবিরে আটক রোহিঙ্গা মুসলমানদের বেশিরভাগ বাংলাদেশের পাসপোর্ট নিয়ে কাজের সন্ধানে সৌদি আরব গিয়েছিলেন। অবশ্য তাদের কারো কারো কাছে ভুটান, ভারত, পাকিস্তান বা নেপালের পাসপোর্ট পাওয়া গেছে।

সৌদি কর্তৃপক্ষ অভিযোগ করছে, রোহিঙ্গা মুসলমানরা ভুয়া কাগজপত্র নিয়ে সৌদি আরবে প্রবেশ করেছে বলে তাদেরকে আটক করা হয়েছে। নিজ দেশের উগ্র বৌদ্ধ ও সেনাবাহিনীর গণহত্যা অভিযান থেকে রক্ষা পেতে রোহিঙ্গা মুসলমানরা মিয়ানমার ছেড়ে পালিয়েছেন।

পাঠকের মন্তব্য