‘কোরান-গীতা-বাইবেল পড়েছি, ভেদাভেদ মানি না’  : নুসরত

‘কোরান-গীতা-বাইবেল পড়েছি, ভেদাভেদ মানি না’  : নুসরতের

‘কোরান-গীতা-বাইবেল পড়েছি, ভেদাভেদ মানি না’  : নুসরতের

ধর্মনিরপেক্ষতাই যে তাঁর ইউএসপি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিডিও প্রকাশ করে তা আগেই জানিয়েছিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো৷ এবার দলনেত্রীর কথাতেই সিলমোহর দিলেন নুসরত স্বয়ং৷ ফেসবুকে ছবি পোস্ট করে সেকথাই জানালেন তিনি৷

টলিউডের ব্যস্ততম অভিনেত্রী নাম লিখিয়েছিলেন তৃণমূল শিবিরে৷ দলে যোগ দেওয়ার উপহারও পেয়েছেন৷ নির্বাচনে বসিরহাট লোকসভা কেন্দ্র থেকেই লড়ছেন তিনি৷ বিরোধীদের অভিযোগ, গ্ল্যামারকে হাতিয়ার করেই নাকি একটি লোকসভা আসন নিজেদের ঝুলিতে রাখতে চেয়েছে তৃণমূল৷ সমালোচকদের এই টিপ্পুনির জবাব দিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ রাজনীতির ময়দানে এক্কেবারে আনকোরা হওয়া সত্ত্বেও শুধুমাত্র ধর্মনিরপেক্ষতার জন্য নুসরতকে ভোটযুদ্ধে লড়াই করানোর চিন্তাভাবনা বলেই জানিয়েছিলেন৷ 

দলনেত্রীর দাবি যে একেবারেই ভিত্তিহীন নয়, সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি পোস্ট করে তা স্পষ্ট করলেন তৃণমূলের তারকা প্রার্থী৷ বৃহস্পতিবার কচুয়াধামে লোকনাথের মন্দিরে পুজো দেন তিনি৷ ওই ছবিটি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন নুসরত৷ তিনি লিখেছেন, ‘‘বসিরহাট কচুয়া বাবা লোকনাথের শান্তির ধামে৷ ঈশ্বর এক ও অদ্বিতীয়৷ আমি নুসরত জাহান৷ মুসলিম পরিবারের মেয়ে৷ আমি ধর্মের ভেদাভেদ মানি না৷ আমি যেমন কোরান পড়েছি৷ তেমন গীতা ও বাইবেল পড়েছি৷ কোথাও ধর্মের ভেদাভেদ ও হানাহানির কথা বলেনি।’’ নুসরতের এই পোস্টের পরই তাঁর প্রশংসায় পঞ্চমুখ নেটিজেনরা৷

প্রতিদিন ভোটপ্রচারে বেরিয়ে কখনও রাজ্য সরকারের উন্নয়নমূলক প্রকল্পের কথা তো কখনও বিরোধীদের আক্রমণই দস্তুর প্রার্থীদের৷ তবে বৃহস্পতিবার এক্কেবারে ভিন্ন মেজাজে জনসংযোগ করেন তারকা প্রার্থী নুসরত৷ হাড়োয়ার অলিগলিতে ঘুরতে ঘুরতে গ্রামের দস্যি কিশোরীর মতো আচরণ করতেও দেখা যায় তাঁকে৷ কখনও কোলে তুলে নেন ছাগলছানা৷

তবে এত কিছুর পরেও স্থানীয়দের সমস্যার কথা শুনতেও ভোলেননি নুসরত৷ জিতলে পারলে সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দেন তিনি৷

পাঠকের মন্তব্য