দক্ষিণ আফ্রিকায় চার্চ ভেঙে মৃত্যু হল কমপক্ষে ১৩

দক্ষিণ আফ্রিকায় চার্চ ভেঙে মৃত্যু হল কমপক্ষে ১৩

দক্ষিণ আফ্রিকায় চার্চ ভেঙে মৃত্যু হল কমপক্ষে ১৩

দক্ষিণ আফ্রিকায় একটি চার্চ ভেঙে মৃত্যু হল কমপক্ষে ১৩ জনের। বৃহস্পতিবার রাতে দুর্ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ আফ্রিকার পূর্ব প্রান্তে অবস্থিত কোয়াজুল-নাটাল উপকূলীয় এলাকার দিয়ানগুবো এলাকার একটি পেন্টেকোস্টাল চার্চে। এই দুর্ঘটনায় জখম হয়েছেন আরও ১৬ জন।

স্থানীয় পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, আগামী রবিবার ইস্টারের অনুষ্ঠান উপলক্ষে ওই চার্চে সংস্কারের কাজ চলছিল। বৃহস্পতিবার রাতে সেই কাজের পর চার্চের ভিতরে শুয়ে ঘুমোচ্ছিলেন কিছু শ্রমিক। পাশাপাশি কিছু মানুষ প্রার্থনার জন্য সেখানে উপস্থিত হন। কিছুক্ষণ পর প্রচণ্ড ঝড় ও বৃষ্টির ফলে ওই চার্চের একটি দেওয়াল আর ছাদ আচমকা ভেঙে পড়ে। এর জেরে ধ্বংসস্তূপের তলায় চাপা পড়ে যান ওখানে আশ্রয় নেওয়া মানুষরা। পরে উদ্ধারকারী দল গিয়ে তাঁদের হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে ১৩জনকে মৃত বলে ঘোষণা করেন কর্তব্যরত চিকিৎসকরা।

প্রত্যক্ষদর্শীদের সূত্রে জানা গিয়েছে, ইস্টারের জন্য ওই চার্চে সংস্কারের কাজ চলছিল। বৃহস্পতিবার রাতে তা সমাপ্ত হওয়ার পর কিছু শ্রমিক একটি অংশে শুয়ে ঘুমোচ্ছিলেন। অন্যদিকে প্রার্থনায় ব্যস্ত ছিলেন স্থানীয় কিছু মানুষ। আচমকা প্রবল ঝড় ও বৃষ্টির ফলে চার্চের একটি দেওয়াল ও ছাদ ভেঙে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পরেই ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি খতিয়ে দেখেন বিপর্যয় মোকাবিলা দল ও স্থানীয় মন্ত্রী নোমুস ডুবে এনকিউব। মৃতদের পরিবারকে আর্থিক সাহায্য দেওয়ার পাশাপাশি জখমদের চিকিৎসাজনিত খরচও সরকার বহন করবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

পাঠকের মন্তব্য