বাংলাদেশ ও ভারতের দৈনিক পত্রপত্রিকার গুরুত্বপূর্ণ খবর

বাংলাদেশ ও ভারতের দৈনিক পত্রপত্রিকার গুরুত্বপূর্ণ খবর

বাংলাদেশ ও ভারতের দৈনিক পত্রপত্রিকার গুরুত্বপূর্ণ খবর

ঢাকা ও কোলকাতার গুরুত্বপূর্ণ বাংলা দৈনিকগুলোর বিশেষ বিশেষ খবরের শিরোনাম। 

বাংলাদেশের শিরোনাম

  1. ‘মন্ত্রীরা যা বলেন, সঙ্গে সঙ্গে তার উল্টোটা ঘটে’- দৈনিক যুগান্তর
  2. অর্থ পাচার মামলায় মামুনের ৭ বছর কারাদণ্ড, ১২ কোটি টাকা জরিমানা-দৈনিক প্রথম আলো
  3. দ্বিতীয় দিনের মতো শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ, রাজধানীতে তীব্র যানজট-দৈনিক ইত্তেফাক
  4. সিরাজগঞ্জের ৯ টি উপজেলায় ব্লাস্ট রোগে পুড়ছে কৃষকের ধান-দৈনিক মানবজমিন
  5. বাদপড়া মন্ত্রী ও এমপিদের কদর বাড়ছে-দৈনিক নয়া দিগন্ত
  6. চিরনিদ্রায় শায়িত শিশু জায়ান চৌধুরী - প্রজন্মকন্ঠ ডট কম 

ভারতের শিরোনাম         

  • ৫০ শতাংশ ইভিএমে ভোটার স্লিপ গুনে দেখার আর্জি, সুপ্রিম কোর্টে ২১ বিরোধী দল-দৈনিক আনন্দবাজার
  • নির্বাচনে কালো টাকা খরচ করছে বিজেপি, শ্রীরামপুরের সভায় বিস্ফোরক মুখ্যমন্ত্রী-দৈনিক সংবাদ প্রতিদিন
  • মৃত্যুর হাত থেকে বাঁচলেন সনকা-দৈনিক আজকাল 

বিশ্লেষণের বিষয়

১. দৈনিক মানবজমিন পত্রিকার একটি বিশেষ প্রতিবেদনে বলা হয়েছে- বেশিরভাগ ধর্ষণের বিচার হয় না। আপনার পর্যবেক্ষণ কী?

২. ইরানের তেল বিক্রি বন্ধের মার্কিন স্বপ্ন পূরণ হবে না- একথা বলেছেন ইরানের তেলমন্ত্রী বিজান জাঙ্গানেহ। মন্ত্রীর এ বক্তব্য কতটা বাস্তব?

এবার ভারতের কয়েকটি খবর তুলে ধরছি

৫০ শতাংশ ইভিএমে ভোটার স্লিপ গুনে দেখার আর্জি, সুপ্রিম কোর্টে ২১ বিরোধী দল-দৈনিক আনন্দবাজার

আগামী লোকসভা নির্বাচনে দেশের ৫০ শতাংশ ইভিএমের ক্ষেত্রে ভিভিপ্যাটের ভোটার স্লিপ গুনে দেখার আর্জি নিয়ে ফের সু্প্রিম কোর্টের দ্বারস্থ ২১ দলের বিরোধী জোট। এই নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের আগের রায় পুনর্বিবেচনার অনুরোধও করেছে বিরোধীরা।

আগেও ইভিএমের গণনা নির্ভুল কি না, তা খতিয়ে দেখতে ভিভিপ্যাটের ভোটার স্লিপ গুনে মিলিয়ে নেওয়ার দাবি তুলেছিল বিরোধীরা। শুরুতে বিধানসভা পিছু একটি ইভিএমের ক্ষেত্রে এই মিলিয়ে নেওয়া সম্ভব বলে জানিয়েছিল নির্বাচন কমিশন। তাঁদের যুক্তি ছিল, যত বেশি ইভিএমের জন্য ভিভিপ্যাট স্লিপ মিলিয়ে দেখা হবে, তত বেশি দেরি হবে গণনায়। সব খতিয়ে দেখার পর বিধানসভা পিছু পাঁচটি ইভিএমের ক্ষেত্রে স্লিপ গুনে মিলিয়ে দেখতে হবে বলে নির্দেশ দেয় সুপ্রিম কোর্ট।

নির্বাচনে কালো টাকা খরচ করছে বিজেপি, শ্রীরামপুরের সভায় বিস্ফোরক মুখ্যমন্ত্রী-দৈনিক সংবাদ প্রতিদিন

‘ওঁরা যদি নোটবাতিল করে আপনাদের চাকরি বাতিল করে পারে, তাহলে আপনারা কেন মোদিবাবুকে বাতিল করবেন না?’ হুগলির শ্রীরামপুরে জনসভায় প্রশ্ন তুললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে শুধু মোদি বিরোধিতাই নয়, তৃণমূল কংগ্রেসের জমানায় হুগলি জেলায় উন্নয়নের খতিয়ানও তুলে ধরেন তিনি।

লোকসভা ভোটে প্রথম তিন দফায় ভোটগ্রহণ মিটেছে উত্তরবঙ্গে সবক’টি আসনেই। ভোট হয়ে গিয়েছে মালদহ ও মুর্শিদাবাদের দুটি আসনেও। পঞ্চম দফায় ৬ মে ভোট হুগলি জেলার তিনটি লোকসভা আসনে। মঙ্গলবার তৃতীয় দফায় ভোটগ্রহণের দিন আরামবাগে দলের প্রার্থী অপরূপা পোদ্দারের সমর্থনে জনসভা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবার হুগলিরই শ্রীরামপুরে জনসভা করলেন তিনি।

মুখবন্ধ খামে প্রধান বিচারপতির বিরুদ্ধে ‘ষড়যন্ত্র’-এর নথি, গোয়েন্দাদের তলব শীর্ষ আদালতে-দৈনিক আনন্দবাজার

দেশের সর্বোচ্চ আদালতের প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ-এর বিরুদ্ধে কোনও ‘ষড়যন্ত্র’ করা হচ্ছে কি না, তা খতিয়ে দেখতে সিবিআই-এর দুই যুগ্ম অধিকর্তা, দিল্লির পুলিশ প্রধান এবং ইন্টেলিজেন্স ব্যুরোকে ডেকে পাঠানো হল সুপ্রিম কোর্টে। শীর্ষ আদালতের ‘জাজেস চেম্বারে’ তাঁদের ডেকে পাঠিয়েছে বিচারপতি অরুণ মিশ্র নেতৃত্বাধীন বিশেষ বেঞ্চ। প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ-এর বিরুদ্ধে ওঠা যৌন অভিযোগের তদন্তে তৈরি করা হয়েছে এই বিশেষ বেঞ্চ। 

উৎসব বইন্স নামের যে আইনজীবী প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ-এর বিরুদ্ধে ‘ষড়যন্ত্র’ চলছে বলে অভিযোগ করেছিলেন, তিনিও মুখবন্ধ খামে সমস্ত তথ্যপ্রমাণ আদালতে জমা দিয়েছেন বলে জানা যাচ্ছে। উৎসব বইন্সের অভিযোগের সত্যতা খতিয়ে দেখতেই দেশের বিভিন্ন তদন্তকারী সংস্থার গোয়েন্দাদের সুপ্রিম কোর্টে ডেকে পাঠানো হয়েছে।

পাঠকের মন্তব্য