শিশু গহীনের বাবা-মায়ের খোজে তৎপর গোয়েন্দা পুলিশ

শিশু গহীন

শিশু গহীন

ঢাকা শিশু হাসপাতালের বাথরুম থেকে উদ্ধার শিশু গহীনের বাবা-মা’র করতে তৎপর হয়ে উঠেছে পুলিশ। হাসপাতালের সিসিটিভি’র ফুটেজ বিশ্লেষণ, সন্দেহভাজনদের জিজ্ঞাসাসহ জোর কার্যক্রম চালাচ্ছে পুলিশ। এ বিষয়ে যুক্ত হয়েছে গোয়েন্দা পুলিশও। 

ডিএমপি পুলিশের তেজগাঁও বিভাগের উপকমিশনার (ডিসি) বিপ্লব কুমার সরকার জাগরণকে বলেন, চেষ্টা করছি আপ্রাণ। দেখা যাক কী হয়। শিশুর বাবা-মাকে পেলে তাদের নিয়েই সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলবো। তেজগাঁও জোনের একটি থানায় কর্মরত বিপ্লব সরকারের ঘনিষ্ঠ এক পুলিশ কর্মকর্তা জানান, যতদূর শুনেছি, তদন্ত কাজ বহুদূর এগিয়েছে। স্যার (বিপ্লব সরকার) মনে হয় শিশুর বাবা-মাকে বের করে ফেলতে পারবেন।

গত ১৪ মে ঢাকা শিশু হাসপাতালের বাথরুম থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়েছিলো। অসুস্থাবস্থায় শিশুটিকে ওই হাসপাতালেই ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় হাসপাতারের ওয়ার্ড মাস্টার থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন।

১৬ মে আজিমপুরের ছোটমনি নিবাসে নেয়া হয় শিশুটিকে। শিশুটির সন্ধান পাওয়ার পর থেকেই তার দেখাশোনা করছিলেন শিশু হাসপাতালের ওয়ার্ড মাস্টার রাসেল মাহমুদ ও তার স্ত্রী পলি বেগম। ১০ বছর আগে এই দম্পতির বিয়ে হলেও তারা নিঃসন্তান। তারাই শিশুটির নাম দেন গহীন। তারাসহ অনেক পরিবার গহীনকে দত্তক নিতে প্রবল আগ্রহী।

পাঠকের মন্তব্য