দুর্গাপুর আদালতের নির্দেশ ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে প্রাচীর নির্মান

আদালতের

আদালতের

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহ : ঝিনাইদহ সদর উপজেলার দুর্গাপুর গ্রামে আদালতের নির্দেশ অমান্য করে পরের জমিতে জোর করে প্রাচীর নির্মান করেছে শমশের মন্ডল ও তার ছেলেরা। অভিযোগ রয়েছে দুর্গাপুর গ্রামের আজিজুর রহমানের ৪৫ শতক জমির মধ্যে দুই শতক জমি অবৈধ ভাবে দখল করে নেয় শমশের মন্ডল। 

আজিজুর রহমান অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ আরিফ-উজ-জামানের আদালতে হাজির হয়ে শমশের মন্ডলের বিরুদ্ধে ফৌজদারী কার্যবিধির ১৪৪ ধারা জারীর আবেদন করেন। আদালত গত ৬ মে নালিশী জমিতে দখলমতে আইনশৃংখলা বজায় রাখতে ঝিনাইদহ সদর থানার ওসিকে নির্দেশনা দেন এবং দ্বিতীয় পক্ষ শমশের মন্ডলকে আদালতে হাজির হয়ে ৩৩১ নং স্মারকে কারণ দর্শাতে বলেন। কিন্তু দখলবাজ শমশের মন্ডল পুলিশ ও আদালতের নিষেধ থোড়ায় কেয়ার করে রাতারাতি আজিজুর রহমানের দুই শতক জমিতে প্রাচীর তুলে জমি দখল করে নিয়েছেন। আজিজুর রহমান অভিযোগ করেন. দুর্গাপুর মৌজার ১৭৮০ নং দাগে তাদের ৪৫ শতক জমিতে বাড়ি রয়েছে। 

এর মধ্যে শমশের মন্ডল দুই, শতক জমি দখল করে প্রাচীর তুলে দিয়েছেন। এ বিষয়ে ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি মিজানুর রহমান খান ইনজেংশনের কথা স্বীকার করে বলেন, ওটা মামা ভাগ্নের পারিবারিক দ্বন্দের কারণে হচ্ছে। তারপরও আমরা গোটা বিষয় নিয়ে একটা প্রতিবেদন আদালতে দাখিল করবো।

পাঠকের মন্তব্য