ভূরুঙ্গামারীতে সহকারী শিক্ষকের কোপে প্রধান শিক্ষক জখম

ভূরুঙ্গামারীতে সহকারী শিক্ষকের কোপে প্রধান শিক্ষক জখম

ভূরুঙ্গামারীতে সহকারী শিক্ষকের কোপে প্রধান শিক্ষক জখম

শামসুজ্জোহা সুজন, থানা প্রতিনিধি, কুড়িগ্রাম : কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারীতে সহকারী শিক্ষকের দায়ের কোপে প্রধান শিক্ষক গুরুত্বর আহত হয়েছে। শনিবার দুপুরে উপজেলার পাইকেরছড়া ইউনিয়নের ছিট পাইকেরছড়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।  জানা গেছে, ছিট পাইকেরছড়া নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তরিকুল ইসলাম রাসেল (৪২) কে একই বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক এমরান হোসেন বাবলা (৪২) ধারালো দা দিয়ে মাথায় এলোপাথাড়ি ভাবে কোপাতে থাকে। 

এতে রাসেলের মাথায় চারটি গভীর ক্ষতের সৃষ্টি হয়। দায়ের কোপ থেকে মাথা বাঁচাতে রাসেল হাত দিয়ে দা ধরার চেষ্টা করলে তার ডান হাতের অনামিকা ও কনিষ্ঠা আঙ্গুল এবং বাম হাতের তর্জনী ও মধ্যমা আঙ্গুল হাত থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। 

এলাকাবাসী এবং রাসেলের চাচাতো ভাই সেলিম জানান, ছিট পাইকেরছড়া নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষকের পদ নিয়ে প্রধান শিক্ষকের সাথে সহকারী শিক্ষক বাবলার দ্বন্দ্ব চলছিল। এরই ধারাবাহিকতায় শনিবার দুপুরে বাবলা রাসেলকে বিদ্যালয়ের ছাদে ডেকে নিয়ে তার উপর হামলা চালায়। আহতের আত্মচিৎকারে এলাকাবাসী এগিয়ে এসে বাবলাকে আটক করে এবং রাসেলকে হাসপাতালে প্রেরণ করে। রাসেল ছিট পাইকেরছড়া গ্রামের মৃত আব্দুল কাদের সরকারের পুত্র। হামলাকারী বাবলা নাগেশ্বরী উপজেলার রামখানা ইউনিয়নের হাতিরভিটা গ্রামের মৃত সেকেন্দার মোল্লার পুত্র। 

ভূরুঙ্গামারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক ডা. নাছিম তানভীর জানান রাসেলের শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। ভূরুঙ্গামারী থানার ওসি ইমতিয়াজ কবির জানান, হামলাকারীকে আটক করা হয়েছে।

পাঠকের মন্তব্য