ভূরুঙ্গমারী উপজেলা থেকে উদ্ধার বনরুইটি এখন রাজশাহীতে

 বনরুইটি এখন রাজশাহীতে

বনরুইটি এখন রাজশাহীতে

নিজস্ব প্রতিবেদক : কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গমারী উপজেলার বলদিয়া ইউনিয়নের কাশিম বাজার এলাকায় আব্দুর রশীদের বাড়ী থেকে একটি বিরল প্রজাতির বনরুই উদ্ধার করেছে পুলিশ। গত শনিবার এটি রাজশাহী বন বিভাগের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। বাংলাদেশের বিলুপ্ত প্রাণীদের একটি।

বাংলাদেশের সিলেট ও শ্রীমঙ্গলে কখনো কখনো এদের দেখা পাওয়া যায়। আসলে এরা বাংলাদেশে বিলুপ্ত প্রায়। এরা শরীরে আঁশযুক্ত স্তন্যপায়ী প্রাণী। বনরুই থেকে ওষুধ তৈরি হয় এবং এর চামড়া দিয়ে দামি জিনিস তৈরি হয় বলে এদের পাচার করার একটা প্রবণতা রয়েছে।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কচাকাটা থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে বনরুইটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। সন্দেহ করা হচ্ছে আন্তর্জাতিক দুর্বৃত্ত চক্রের সাথে জড়িত আব্দুর রশীদ ভারত থেকে বনরুইটি এনে অন্য কোন দেশে পাঁচার করার পরিকল্পনা করেছিল। 

রাজশাহীতে আনার পর একে সেই জাতীয় খাবার সরবরাহ করা হচ্ছে। তা ছাড়া বিকল্প খাদ্য হিসেবে এরা সেদ্ধ ডিম ও গুঁড়া দুধ খায়। এই খাবারও প্রাণীটিকে দেওয়া হয়েছে। সে তা খেয়েছে। তিনি বলেন, আরও আট-দশ দিন তারা প্রাণীটিকে পর্যবেক্ষণ করবেন। তারপর সম্পূর্ণ ছেড়ে দেওয়ার মতো সুস্থ হলে এটাকে শ্রীমঙ্গলের প্রাকৃতিক পরিবেশে ছেড়ে দেওয়া হবে।

রোববার দুপুরে গিয়ে দেখা যায়, সংরক্ষণ কেন্দ্রে বনরুইটি গুটিসুটি মেরে শুয়ে রয়েছে। জানা যায়, বন বিভাগের একজন কর্মী এটিকে জাগিয়ে তোলেন, তখনো এটি চোখ বন্ধ করে ছিল।

পাঠকের মন্তব্য