ভুরুঙ্গামারীতে ভিজিডির উপকারভোগিদের মাঝে পচাঁ চাল বিতরণ 

ভূরূঙ্গামারীতে ভিজিডির উপকারভোগিদের মাঝে পচাঁ চাল বিতরণ 

ভূরূঙ্গামারীতে ভিজিডির উপকারভোগিদের মাঝে পচাঁ চাল বিতরণ 

কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারীতে ২০১৯ -২০ চক্রের ভিজিডি কর্মসূচীর আওতায় উপকারভোগীদের মাঝে পচাঁ চাল বিতরন করা হয়েছে। রোববার উপজেলার তিলাই ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে দুঃস্থ মহিলা উন্নয়ন (ভিজিডি) কর্মসূচীর আওতায় ২০১৯-২০ চক্রের উপকারভোগীদের মাঝে ৫ মাসের (১৫০কেজি) করে চাল বিতরন করেন ইউপি চেয়ারম্যান ফরিদুল হক শাহিন সিকদার। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় বিতরনকৃত ৫ বস্তা চালের মধ্যে ১-২ বস্তা চাল পচাঁ যা খাওয়ার উনুপোযোগী। 
উপকারভোগী তিলাই ইউপির চেয়ারম্যানকে জানালে তিনি চাল পরিবর্তনে অস্বীকৃতি জানান।

পরে ট্যাগ অফিসার উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা জিন্নাত আরা ইয়াছমিনকে জানানো হয়। তিনি কোন পদক্ষেপ গ্রহন না করেই চাল বিতরন অব্যাহত রাখেন। 
এতে দেখা যায় প্রতি উপকারভোগীকে ১-২বস্তা করে খাওয়ার অনুপোযোগী পচাঁ চাল বিতন করা হলে সেখানে উপস্থিত স্থানীয় জনসাধারন এর তীব্র প্রতিবাদ জানালেও উক্ত চেয়ারম্যান ও কর্মকর্তা কোন কর্নপাত করেন নি।

ইউপি চেয়ারম্যান ফরিদুল হক শাহিন সিকদার বলেন, চাল গোডাউনে থাকার কারনে পচেঁ গেছে। আমার কিছু করার নাই। এ ব্যাপারে ট্যাগ অফিসার ও উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা জিন্নাত আরা ইয়াছিন কোন কথা বলতে রাজি হননি।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার এস এইচ এম মাগফুরূল হাসান আব্বাসীর সঙ্গে মুঠেফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, চাল বিতরনে দুজন অফিসার দেয়া হয়েছে। পচাঁ চাল বিতরন কেন হবে। বিষয়টি আমি দেখছি।

পাঠকের মন্তব্য