প্রথম ম্যাচের ব্যর্থতা নিয়ে ইংল্যান্ডের মুখোমুখি পাকিস্তান

প্রথম ম্যাচের ব্যর্থতা নিয়ে ইংল্যান্ডের মুখোমুখি পাকিস্তান

প্রথম ম্যাচের ব্যর্থতা নিয়ে ইংল্যান্ডের মুখোমুখি পাকিস্তান

চলতি বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে বড় হারের ব্যর্থতা নিয়ে দ্বিতীয় ম্যাচে ইংল্যান্ডের মুখোমুখি হচ্ছে পাকিস্তান। নটিংহ্যামের ট্রেন্ট ব্রিজে ম্যাচটিতে টসে হেরে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নামতে যাচ্ছে সরফরাজ আহমেদের দল।

একই ভেন্যুতে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে ৭ উইকেটে হারে পাকিস্তান। অন্যদিকে টুর্নামেন্টে শুভ সূচনা করেছে স্বাগতিক ইংল্যান্ড। লন্ডনের কেনিংটন ওভালে উদ্বোধনী ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ১০৪ রানে হারায় তারা।

ট্রেন্ট ব্রিজের উইকেট খুবই রান প্রসবা। ওয়ানডে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ দুটি দলীয় ইনিংসের রেকর্ড হয়েছে এই ভেন্যুতেই। দুটিই গড়েছে ইংল্যান্ড, যার একটি আবার পাকিস্তানের বিপক্ষে।

২০১৬ সালে এ উইকেটে ৩ উইকেটে ৪৪৪ রানের পাহাড় গড়েছিল ইংলিশরা। এর দুই বছর পর অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সেই রেকর্ড ভেঙে দিয়েছিল ইংল্যান্ড। যেখানে তারা ৬ উইকেটে সংগ্রহ করেছিল ৪৮১ রান।

সময়টা মোটেও ভালো যাচ্ছে না পাকিস্তানের। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সাত উইকেটের হার দিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করেছে তারা। বিশ্বকাপের আগে স্বাগতিক ইংলিশদের কাছে পাঁচম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে ৪-০ ব্যবধানে হারে দলটি। সব মিলিয়ে গত এগারোটি ওয়ানডেতে টানা হেরেছে সরফরাজ আহমেদের দল। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে লড়াই দিয়ে জয়ে ফেরার লক্ষ্য থাকবে তাদের।

এদিকে, দারুণ ছন্দে আছে ইংল্যান্ড। উদ্বোধনী ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ১০৪ রানের জয় পায় তারা! জয়ের ধারা ধরে রাখাই লক্ষ্য থাকবে দলটির।

ইংলিশ ব্যাটসম্যানদের লাগাম টেনে ধরে পারেন পাকিস্তানের পেসাররা। ফিটনেস ফিরে পেয়ে বল হাতে ছন্দের দেখা পেয়েছেন মোহাম্মদ আমির। উইন্ডিজের বিপক্ষে হারা ম্যাচে তিন উইকেট শিকার করেছেন পাকিস্তানের এই পেসার।

বিশ্বকাপে দল দুটির হেড টু হেড ফল সমানে সমান। নয়বারের লড়াইয়ে ইংল্যান্ড জয়ী ও পাকিস্তান দুটি দলই জিতেছে ৪টি করে ম্যাচ। পরিত্যাক্ত একটি ম্যাচ। সব মিলিয়ে ওয়ানডেতে ৮৭বারের লড়াইয়ে এগিয়ে ইংল্যান্ড। দলটির জয় ৫৩ ম্যাচে। পাকিস্তান জয়ী ৩১ ম্যাচে জয়ী। আর পরিত্যক্ত ২টি ম্যাচ।

পাঠকের মন্তব্য