এবারের বাজেট গণমানুষের প্রত্যাশা পূরণ করবে

এবারের বাজেট গণমানুষের প্রত্যাশা পূরণ করবে

এবারের বাজেট গণমানুষের প্রত্যাশা পূরণ করবে

এবারের বাজেট গণমানুষের প্রত্যাশা পূরণ করবে - এমনটাই ভাবছেন সাধারণ মানুষ। শিক্ষা, স্বাস্থ্য, বাসস্থানসহ মৌলিক অধিকার সুরক্ষায় সরকার ভূমিকা রাখবে বলে আশা করেন তারা। দুর্নীতি প্রতিরোধ আর নিত্যপণ্যের দাম নাগালের মধ্যে রাখারও দাবি তাদের। গাজীপুরের গোবিন্দবাড়ীর বাসিন্দা আবুল মিয়া। ছোট্ট এই চায়ের দোকানই তার রোজগারের একমাত্র সম্বল। বাজেট নিয়ে তেমন কোন ভাবনা না থাকলেও চা আর চিনির দাম বাড়া নিয়ে থাকেন শঙ্কায়।

চা দোকানির ভাবনা চা-চিনির মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকলেও ক্রেতাদের ভাবনার পরিধি আরো বেশি। চায়ের আড্ডায় তাই উঠে আসে বাজেটে বরাদ্দ আর বণ্টনের নানা দিক নিয়ে।

তিনি বলেন চা পাতি চিনির দাম বাড়তেছে, চাল ডালের দামও বাড়তেছে, যা আছে সবকিছুর দামই বাড়তেছে। ৪৮তম বাজেটের সম্ভাব্য আকার ধরা হয়েছে ৫ লাখ ২৩ হাজার ১শ' ৯০ কোটি টাকা। বিশাল এই বাজেটে গণমানুষের চাওয়ার প্রতিফলন ঘটবে- এমনটাই প্রত্যাশা তাদের।

 নতুন ভ্যাট আইন কার্যকর করা, বেকারদের বিশেষ ঋণ সুবিধা দেয়া, প্রবাসীদের জন্য বীমা স্কিম চালু এবং সাড়ে ৬ হাজার পণ্য ও সেবায় আগাম কর বসানো হতে পারে এবারের বাজেটে।

বলা হয় একটি দেশের সম্ভাব্য আয় ব্যয়ের হিসেব-নিকেষ এই বাজেট। তাই এটি যেনো ভারসাম্যমূলক আর কল্যাণমূখী হয় সেজন্য বরাদ্দের ক্ষেত্রে যৌক্তিকতা যাচাই আর বণ্টনের ক্ষেত্রে আনতে হবে স্বচ্ছতা।

পাঠকের মন্তব্য