পাইকগাছায় আলোচিত হালিম শিকারির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সমাবেশ 

পাইকগাছায় আলোচিত হালিম শিকারির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সমাবেশ 

পাইকগাছায় আলোচিত হালিম শিকারির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সমাবেশ 

পাইকগাছায় হুমকি,সন্ত্রাসী- চাঁদাবাজি, অস্ত্র ও বনদস্যু কানেকশন সহ প্রতারনার অভিযোগে আলোচিত একাধিক মামলার আসামী হালিম শিকারীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহনের দাবীতে প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার বেলা ১১ টার সময় গড়ইখালীর শান্তা বাজারে ইউপি চেয়ারম্যান-মেম্বর, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, সচেতন মহল সহ ভুক্তভোগীরা এ কর্মসুচি পালন করেছেন। এর আগে হালিমের বিরুদ্ধে এলাকার মানুষ খুলনা- ৬'র এমপি'র কাছে অনুরূপ অভিযোগ করেছেন বলে জানাগেছে। 

সরেজমিনে গিয়ে অনুষ্ঠিত সমাবেশ থেকে বক্তারা বলেন, হোগলার চকের আলোচিত হালিম শিকারী এক সময় সুন্দরবনের মাছ-কাঁকড়ার ব্যবসার সাথে জড়িত ছিল। এ ব্যবসা থাকার সুবাদে সে বনদস্যু- জলদস্যু সহ নানা অপরাধ চক্রের সাথে জড়িয়ে পড়ে এলাকায় প্রভাব বিস্তার করতে থাকে। স্থানীয় ইউপি সদস্য সহিদুল ইসলাম সরদার, শাহাবুদ্দীন গাইন হালিমের হুমকির অভিযোগ করে বলেন, সে দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় কখনো র ্যাব, ফরেষ্টার ও কোষ্টগার্ডের সোর্স পরিচয় দিয়ে মানুষ হয়রানি করে আসছে। যারা সুন্দরবনে মাছ- মধু ও অন্যান্য ব্যবসা করে জীবিকা নির্বাহ করে থাকে তাদেরকে ভয়ভীতি দেখিয়ে চাঁদা তুলে আসছেন। এমন কি যারা টাকা দিতে ব্যর্থ হয় তাদের বাড়ীতে বাঘ-হরিনের চামড়া, কর্তন নিষিদ্ধ কাঠ দিয়ে মামলায় জড়ানোর হুমকি দিয়ে অর্থ আদায় করে। ইউনিয়ন আ'লীগের সহ- সভাপতি অর্ধেন্দু শেখর মন্ডলের সভাপতিত্বে এ সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন আলীগ নেতা ও ইউপি চেয়ারম্যান-রুহুল আমিন বিশ্বাস। বিশেষ অতিথি ছিলেন ইউনিয়ন আলীগ সম্পাদক এসএম আয়ুব আলী,আবুল কালাম আজাদ,হক শফি,ইউপি সদস্য শহিদুল ইসলাম,শাহাবুদ্দীন গাইন,নাছরিনা মন্টু,সীমা রানী,আক্তার গাইন,আছাফুর রহমান মন্টু,আঃ মাজেদ, গাউসুর রহমান, এসএম মাহামুদ, বাবুল গাজী, তারিকুল ইসলাম, রব্বানী গাজী, রথিন বর্মন সহ অনেকে। 

সভায় বক্তারা প্রতিকার চেয়ে আরোও বলেন,গত ৩-৫-১৮ রাত্রে ডিবি পুলিশ হালিম শিকারীর ঘেরের কাছ থেকে পুতে রাখা অস্ত্র-গুলি উদ্ধার করে তাকে আটক করলে গনমাধ্যমে ব্যাপক প্রচার হয়। সর্বশেষ গত ১৮-৪- ১৯ তারিখে সন্ধ্যায় সংগ্রাম মোড়ে হালিমের চাঁদাবাজি কালে কয়রা থানা পুলিশ তাকে আটক করে। এ ঘটনায় কয়রা থানায় মামলাও হয়। এ সব অভিযোগ সম্বন্ধে হালিম শিকারী বলেন, পুর্ব কুমখালীতে আমার ঘে্র কেন্দ্রিক বিরোধ নিয়ে আশিক-রব্বানীরা পুর্ব পরিকল্পত ভাবে আমাকে ক্ষতিগ্রস্থ করার জন্য এ সব প্রচার করছেন। এলাকায় হালিম শিকারীর নামে ব্যাপক অভিযোগের কথা তুলে ওসি এমদাদুল হক শেখ জানান, অচিরেই তাঁর বিরুদ্ধে তিনি আইনগত ব্যবস্থা নেবার কথা জানান।

পাঠকের মন্তব্য