ঝিনাইদহে ভূয়া ডাক্তারকে কারাদন্ড দিলেন ভ্রাম্যমান আদালত

ঝিনাইদহে ভূয়া ডাক্তারকে কারাদন্ড দিলেন ভ্রাম্যমান আদালত

ঝিনাইদহে ভূয়া ডাক্তারকে কারাদন্ড দিলেন ভ্রাম্যমান আদালত

ঝিনাইদহে হোমিওপ্যাথিক এক ভূয়া ডাক্তার কে তিন মাসের কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত।

১৭ জুন সোমবার বিকালে ঝিনাইদহ সদরের কুসাবাড়িয়া বাজার থেকে,মাগুরা জেলার মোহাম্মাদ পুর উপজেলার বেথুলিয়া গ্রামের আ: রশিদ মোল্ল্যার পুত্র মো:আফজাল মোল্ল্যা (৫০)কে তিন মাসের কারাদন্ড দিয়েছে আদালত।জানাযায় মো:আফজাল মোল্ল্যা কুসাবাড়িয়া বাজারে চেম্বার খুলে বসেন,এবং সপ্তাহে দুই দিন রোগী দেখবেন বলে এলাকায় মাইকিং করেন। তার নামের পাশে পদবী লেখেন ডা: এইচ এম আফজাল, ডিএইচএমএস ঢাকা।

স্থানীয় লোকজন তাকে সন্দেহ করে পুলিশকে খবর দেয়,পরে নারিকেল বাড়িয়া পুলিশ ক্যাম্প এর আইসি জীবন কুমার দাস,ও ক্যাম্প এর টু আইসি হুমায়ন কবির তাকে আটক করে সদর উপজেলায় নিয়ে আসেন। এ সময় সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাম্মী ইসলাম তার কাগজ পত্র (সার্টিফিকেট) দেখতে চাইলে,সে কোন কিছুই দেখাতে পারেন না।পরে তাকে ২০০৯ সালের ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে ৪১ ধারায় আদালত, ভূয়া ডাক্তার কে তিন মাসের কারাদন্ড দেয় ।পরে তাকে জেল হাজতে পাঠানো হয়।

পাঠকের মন্তব্য