উদ্বাস্তু শিশুদের জন্য মর্মস্পর্শী বার্তা সুপারস্টার প্রিয়াঙ্কার

উদ্বাস্তু শিশুদের জন্য মর্মস্পর্শী বার্তা সুপারস্টার প্রিয়াঙ্কার

উদ্বাস্তু শিশুদের জন্য মর্মস্পর্শী বার্তা সুপারস্টার প্রিয়াঙ্কার

কথায় বলে, যে রাঁধে সে চুলও বাঁধে। প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার ক্ষেত্রে এই প্রবাদ বাক্য অক্ষরে অক্ষরে প্রযোজ্য। যেমন দক্ষতায় সামলাচ্ছেন অভিনয়, তেমনই জমিয়ে স্বামী নিক জোনাসের সঙ্গে ঘর করছেন। আবার ঠিক সমান গুরুত্বের সঙ্গেই পালন করছেন ইউনিসেফ (UNICEF)-এর দায়িত্ব। প্রকৃতপক্ষে একজন সুপারস্টার প্রিয়াঙ্কা।

UNICEF-এর গুডউইল অ্যাম্বাসাডরের দায়িত্বে রয়েছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া জোনাস। আর তাই কাজের সূত্রে বিশ্বের সেই প্রান্তিক এলাকাগুলিতে পৌঁছে যান দেশি গার্ল, যেখানকার সাধারণ মানুষের দিন কাটে অভাব অনটনে। সেখানকার শিশুদের সঙ্গেও সময় কাটান। আর তাই ২০ জুন ‘বিশ্ব শরণার্থী দিবস’ উপলক্ষে মন ছুঁয়ে যাওয়া বার্তা নিজের সোশ্যল মিডিয়ায় শেয়ার করলেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি তাঁর ভক্তদের কাছে একটি অনুরোধ রেখেছেন। নিক-ঘরনির অনুরোধ, বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে যে সব শিশু শরণার্থী রয়েছে তাদের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিক গোটা দুনিয়া।

এতবছর ধরে তিনি বাচ্চাদের জন্যে যেসব কাজ করেছেন, তার একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। তার সঙ্গে বেঁধেছেন খাসা ক্যাপশনও। “সত্যিটা খুবই সহজ। বিশ্বের ভবিষ্যত্‍ আজকের শিশুদের হাতেই। কিন্তু রূঢ় বাস্তব অন্য চিত্র দেখাচ্ছে, যেখানে এই প্রজন্মের বহু নিষ্পাপ শিশু সুনিশ্চিত ভবিষ্যতের প্রতিশ্রুতি ছাড়াই বড় হচ্ছে। বিভিন্ন দেশে ঘটে যাওয়া নানা অশান্তি এবং যুদ্ধের জন্যে এদের বাধ্য হয়ে নিজেদের বাসভূমি ছেড়ে পাড়ি দিতে হচ্ছে অচেনা দেশে। পরিবারের সঙ্গে এই বিচ্ছেদের ভয়াবহ প্রভাব পড়ছে ওদের ছোট ছোট মনে। ওরাই তো এই পৃথিবীর ভবিষ্যত্‍। নিজের নিজের সামর্থ্য অনুযায়ী ওদের পাশে দাঁড়ানো আমাদের কর্তব্য।” সহৃদয় ব্যক্তিরা কীভাবে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেবেন, সেই পদ্ধতিও বাতলেছেন প্রিয়াঙ্কা খোদ। পোস্টের নীচেই একটি লিংক দিয়েছেন, যেই লিংকে ক্লিক করে আপনি সরাসরি UNICEF-এর মাধ্যমে বিশ্বের দুঃস্থ শিশুদের পাশে দাঁড়াতে পারবেন।

পাঠকের মন্তব্য