পাকিস্তানের সঙ্গে আলোচনা নয়, সাফ জানাল ভারত

পাকিস্তানের সঙ্গে আলোচনা নয়, সাফ জানাল ভারত

পাকিস্তানের সঙ্গে আলোচনা নয়, সাফ জানাল ভারত

পাকিস্তানের তরফ থেকে কথা বলার আর্জিতে জবাব দেয়নি ভারত। শুধুমাত্র প্রতিবেশী দেশ হিসেবে পাকিস্তানের সঙ্গে স্বাভাবিক সম্পর্ক রাখতে চেয়েছে। এমনটাই সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়েছে নয়াদিল্লির তরফে।

বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র রবিশ কুমার জানিয়েছেন, কূটনৈতিক নিয়ম মেনে প্রধানমন্ত্রী ও বিদেশমন্ত্রী পাকিস্তানের তরফ থেকে পাঠানো শুভেচ্ছাবার্তায় সাড়া দিয়েছেন। সেটা কেবলই সম্পর্কটা স্বাভাবিক রাখার জন্য।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর যেহেতু পাকিস্তানের শুভেচ্ছাবার্তার জবাব দিয়েছেন, তাই পাক মিডিয়ার দাবি ভারত আলোচনায় রাজি হয়েছে। কিন্তু আদতে সেরকম কিছুই ঘটেনি, সেটা স্পষ্ট জানিয়ে দিল বিদেশমন্ত্রক।

নয়াদিল্লি বরাবরই বলে এসেছে যে সন্ত্রাস আর আলোচনা একইসঙ্গে চলতে পারে না। সেই অবস্থানেই অনড় থাকলেন মোদী। বিশকেকে এসসিও সম্মেলনে গিয়ে জিংপিং-কে তাই পাকিস্তানের সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে বার্তা দিয়েছেন মোদী।

পাক সংবাদ মাধ্যমের রিপোর্ট অনুযযায়ী, ইমরান খানও চিঠিতে আলোচনার মধ্যে দিয়ে কাশ্মীর সমস্যা মেটেনোর কথা বলেন৷ দক্ষিণ এশিয়ায় শান্তি ও উন্নয়নের লক্ষ্যে ভার-পাক একযোগে কাজ করা উচিত বলেও মনে করেন ইমরান৷ তাই আলোচনার এই প্রস্তাব৷ কিন্তু তাতেও সাড়া দেয়নি ভারত।

সাংহাই কো অপারেশন অর্গানাইজেশনের শীর্ষ বৈঠকের ফাঁকে দেখা হয় মোদী ও চিনের প্রেসিডেন্ট জিংপিংয়ের। বিদেশ সচিব জানিয়েছেন, মোদী চিনের প্রেসিডেন্টকে বলেন, ‘‘সন্ত্রাসমুক্ত এক পরিমণ্ডল তৈরি করা প্রয়োজন পাকিস্তানের। কিন্তু এই মুহূর্তে তেমন কিছু ঘটতে দেখছি ন‌া। আমরা আশাবাদী ইসলামাবাদ কড়া ব্যবস্থা নেবে।”

পাঠকের মন্তব্য