‘বাংলাদেশের ভয়ংকর হত্যাকারী জিয়াউর রহমান’

শাজাহান খান

শাজাহান খান

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত জিয়াউর রহমানকে ‘বাংলাদেশের ভয়ংকর হত্যাকারী’ হিসেবে আখ্যা দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য ও সাবেক নৌ পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান।

বুধবার জাতীয় সংসদে ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেটের উপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এ আখ্যা দেন। অধিবেশনে সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী সভাপতিত্ব করেন।

বিএনপির সংসদ সদস্যদের দেওয়া বক্তব্যের সমালোচনা করে শাজাহান খান বলেন, ‘যদি প্রশ্ন করা হয় দেশে ভয়ংকর হত্যাকারী কে? তাহলে উত্তর হবে- জিয়াউর রহমান। জিয়াউর রহমান ভয়ংকর হত্যাকারীর নাম। জিয়া ক্ষমতায় এসে জেলের মধ্যে রাজনৈতিক নেতাকর্মীদের হত্যা করেছেন।’

তিনি বলেন, ‘তার (জিয়া) আমলে ৮১টি রাজনৈতিক হত্যাকাণ্ড সংগঠিত হয়েছে। খালেদা জিয়া ক্ষমতায় এসে ১৭ জন শ্রমিক ও ১৮ জন কৃষককে গুলি করে হত্যা করেন। কিশোরী ইয়াসমিন ধর্ষণ ও হত্যার প্রতিবাদে যখন আন্দোলন হচ্ছিল তখন ৭ জনকে গুলি করে হত্যা করেন খালেদা জিয়া।’

বাজেটের উপর আলোচনায় শাজাহান খান আরো বলেন, ‘সড়ক পরিবহন সেক্টরের শ্রমিক ও মালিকেরা সারা বছর দেশের মানুষের সেবা করে থাকে। পরিবহনের উপর কর ধার্য করা হলে ভোক্তাদের উপর চাপ বাড়বে। এর প্রভাব যাত্রীদের উপর পড়বে। পরিবহন শিল্পে ব্যবহৃত যন্ত্রাংশ বিদেশ থেকে আনতে হয়। এর উপর আমদানি শুল্ক বাড়লে পরিবহন শিল্পের বিকাশ ব্যাহত হবে। তাই আমি পরিবহন শিল্পে ভ্যাট শতকরা ৩ শতাংশ করার প্রস্তাব করছি। এসি বাসের জন্য ভ্যাটের হার হ্রাস করার প্রস্তাব করছি আমি।’

মুক্তিযোদ্ধাদের বিষয়ে তিনি বলেন, মুক্তিযোদ্ধারা এখন ১০ হাজার টাকা ভাতা পাচ্ছেন। এই ভাতা বাড়িয়ে আমি বাড়িয়ে ২০ হাজার টাকা করার প্রস্তাব করছি।’

পাঠকের মন্তব্য