পাক ক্রিকেটারকে ‘অশ্লীল’ কটাক্ষ, বিতর্কে তসলিমা

পাক ক্রিকেটারকে ‘অশ্লীল’ কটাক্ষ, বিতর্কে তসলিমা নাসরিন

পাক ক্রিকেটারকে ‘অশ্লীল’ কটাক্ষ, বিতর্কে তসলিমা নাসরিন

বরাবরই তিনি পরিচিত স্পষ্টভাষী হিসেবে। প্রথা ভাঙা হোক, কিংবা স্রোতের বিপরীতে গিয়ে তথাকথিত মৌলবাদের প্রতিবাদ করা। সবেতেই সিদ্ধহস্ত তসলিমা নাসরিন। বহুক্ষেত্রেই তাঁর এই ঠোঁটকাটা মানসিকতা প্রশংসিতও হয়েছে বহুক্ষেত্রে। কিন্তু, এবার সামান্য কারণে, সমালোচনার মুখে পড়তে হল সেলিব্রিটি সাহিত্যিককে। নিছকই মজা করতে গিয়ে এক পাক ক্রিকেটারকে অশ্লীল ভাষায় আক্রমণ করে বসলেন তসলিমা। যা নিয়ে রীতিমতো সমালোচনা শুরু হয়েছে নেটদুনিয়ায়।

শুক্রবার বাংলাদেশ-পাকিস্তান ম্যাচটি হয়তো বেশ মন দিয়েই দেখেছেন তসলিমা। যতই হোক নিজের দেশের প্রতি একটা টান তো থাকেই। যাই হোক, সেসময় ব্যাট করছিলেন পাকিস্তানের ফখর জামান। বিশ্বকাপটা ফখরের জন্য খুব একটা ভাল যাচ্ছে না। শুক্রবারের ম্যাচটাও খুব একটা ভাল যায়নি তাঁর। ৩১ বলে মোটে ১৩ রান করেছেন তিনি। সেসময় তসলিমা একটু টুইট করেন। যেখানে ফখরের নাম বিকৃত করে লেখা হয় ‘Fucker’। ইংরেজিতে এই শব্দটি গালাগালি হিসেবে বিবেচিত হয়, সেটা কারও অজানা নয়। সেলিব্রিটি সাহিত্যিকের কাছ থেকে তাই এমন শব্দ প্রত্যাশা করেননি কেউ। স্বাভাবিকভাবেই তসলিমার সমালোচনায় সরব হয়েছেন নেটিজেনদের একাংশ।

এদিকে, বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ম্যাচ খেলার পরই অবসর ঘোষণা করেছেন পাক অধিনায়ক শোয়েব মালিক। খেলা শেষ হওয়ার পরপরই ঘোষণাটা করে দেন শোয়েব। কুড়ি বছরের আন্তর্জাতিক কেরিয়ারে দাঁড়ি টেনে তিনি বলে দেন, “আমি বলেছিলাম, বিশ্বকাপ খেলে অবসরে চলে যাব। তাই আজ আমি ঘোষণাটা করে দিচ্ছি। যাঁরা আমাকে এত দিন ধরে সমর্থন করেছেন, আমার খেলা যাঁদের পছন্দ হয়েছে, তাঁদের সবাইকে ধন্যবাদ।” ১৯৯৯ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে ওয়ান ডে অভিষেক হয় শোয়েবের। 

দেশের হয়ে ২৮৭ ওয়ান ডে খেলে ৭ হাজার ৫৩৪ রান করেছেন শোয়েব। ৯টি সেঞ্চুরির সঙ্গে ৪৪টি হাফসেঞ্চুরিও আছে তাঁর। উইকেট নিয়েছেন ১৫৮টি। পাশাপাশি সানিয়া মির্জার স্বামী পাকিস্তানের হয়ে ৩৫টা টেস্টও খেলেছেন।

পাঠকের মন্তব্য