পাসপোর্ট করতে এসে আটক তিন রোহিঙ্গা তরুণী

পাসপোর্ট করতে এসে আটক তিন রোহিঙ্গা তরুণী

পাসপোর্ট করতে এসে আটক তিন রোহিঙ্গা তরুণী

রংপুর বিভাগীয পাসপোর্ট অফিসে ভুয়া জাতীয় পরিচয়পত্র দেখিয়ে পাসপোর্ট করতে এসে তিন রোহিঙ্গা তরুণী আটক হয়েছে। রবিবার (৭ জুলাই) বিকেলে পাসপোর্ট অফিসের কর্মকর্তারা তাদের পুলিশে সোপর্দ করেছে।

রংপুর বিভাগীয় পাসপোর্ট অফিসের উপ-পরিচালক নুরুল হুদা জানান, শারমিন আখতার (২০) সুমাইয়া বেগম (২২) ও তাসমিন আরা (২৩) নামে তিনজন তরুণী পাসপোর্ট করতে বিকালে রংপুর নগরীর রাধাবল্লভ এলাকায় অবস্থিত পাসপোর্ট অফিসে আসে। তারা তিনজনই ভুয়া জাতীয় পরিচয়পত্রের কপি দেখায় যেখানে তাদের বাসার ঠিকানা রংপুর সদর উপজেলার মমিনপুর ইউনিয়নের কুর্শাবলরামপু উল্লেখ করা হয়। 

কথাবার্তায় সন্দেহ দেখা দিলে তাদের আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তারা রোহিঙ্গা বলে স্বীকার করে। সন্ধ্যা ৬ টার দিকে তাদের মেট্রোপলিটন পুলিশের কোতোয়ালি থানায় সোপর্দ করা হয়। তিনি জানান, তাদের জাতীয় পরিচয়পত্র পরীক্ষা করে দেখা গেছে, তিনটি পাসপোর্টই নকল। মেট্রোপলিটান পুলিশের কোতোয়ালি থানার ওসি আব্দুর রশিদ জানান, আটক তিনজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এদিকে তিন রোহিঙ্গা তরুণীকে গ্রেফতারের পর গোয়েন্দা মহলে তোলপাড় শুরু হয়েছে। বেশ কয়েকজন গোয়েন্দা কর্মকর্তা জানান, তাদের কাছে তথ্য আছে- রংপুর নগরী ও আশপাশের উপজেলায় অর্ধশতাধিক রোহিঙ্গা নারী ও যুবক আশ্রয় নিয়েছে। তাদের সন্ধান করা হচ্ছে।

পাঠকের মন্তব্য