আল্লাহ মাঝে মাঝে ডাক্তাররূপে ফেরেস্তাদের পাঠান

ডাক্তাররূপে ফেরেস্তা

ডাক্তাররূপে ফেরেস্তা

চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজের ওঙ্কোলজি বিভাগের প্রফেসর তিনি। শুক্রবারে মাঝে মাঝে ঢাকায় রোগী দেখতে আসেন। সকালের ফ্লাইটে ঢাকা এসে রাতের ফ্লাইটে চট্টগ্রাম ফেরত যান। 

গত ৫ জুলাই, শুক্রবার, সকাল ৯টা ১৫তে ইউ এস বাংলার এক ফ্লাইটে তাঁর টিকেট কাটা। ঘুম থেকে উঠে সকাল সাতটায় খবর পেলেন বাস এক্সিডেন্টে দুই কিশোর মারাত্মক যখম নিয়ে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের জরুরী বিভাগে আছে। সাথে তাদের আরো ৮ অসহায় কিশোর বন্ধু, যারা কিছুদিন আগে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা শেষ করে বান্দরবান আর কক্সবাজার বেড়িয়ে রাতের বাসে কক্সবাজার থেকে ঢাকা ফিরছিলো, সীতাকুন্ডুর কাছে মুখোমুখী বাস সংঘর্ষে এই দলের সামনের দিকে জানালার পাশে বসে থাকা দুজন মারাত্মক আহত হয় । 

তিনি হাত ব্যাগ গুছিয়ে বিমানবন্দর যাওয়ার পথে মেডিক্যালের জরুরী বিভাগে গিয়ে তদারকি শুরু করেন। এক কিশোরের অবস্থা বেশী খারাপ। তাঁর মুখে, হাতে, কপালে, গলায়, বুকে অনেকগুলো কাঁচের টুকরা ঢুকে আছে। বাম হাতের আঙ্গুলের কাছ থেকে প্রায় দুই ইঞ্চি মাংস কাটা পড়েছে। দুটো ট্যান্ডন ছিড়ে গেছে। 

তাঁর বিমান তাকে ছেড়েই চলে যায় ঢাকায়, তাঁর টিকেট বাতিল হয়।

এর মধ্যে সেলাইসাবুদের কাজ আর কোনমতে ঢাকায় নিয়ে যাবার জন্য হাতের মারাত্মক ইনজুরিতে ড্রেসিং করতে করতে বেজে যায় বেলা দশটা। তিনি নিজের দায়িত্বে দশ কিশোরসহ নিজের টিকেট কাটেন ইউ এস বাংলার সাড়ে এগারোটার ফ্লাইটে। নিজেই ব্যবস্থা করেন সবচে ভালো দুটো এম্বুলেন্স যেটাতে করে দুই আহতকে বিমান বন্দর পর্যন্ত নিয়ে আসা হয়। বিমানে ওঠার আগে বিড়ম্বনা। তিনি নিজের পরিচয় দেন। তাতেও কাজ হয় না। তাঁর সামনে একটা ফর্ম নিয়ে আসা হয়, সেখানে তাঁর সই করতে হবে। তিনি কোন কিছু না পড়ে সই করে দেন।

আজ, কিছুক্ষণ আগে কথা হলো অধ্যাপক ডঃ সাজ্জাদ ইউসুফের সাথে। বিমান বন্দরে সেদিন এসব কিছু আলাপ হয় নি, শুধু কোথায় কিভাবে কী কী চিকিতসা হবে তার বয়ান দিয়েছেন মাত্র। আজ তিনি নিজেই আমাকে ফোন দিয়ে শুনলেন ইবন হাসপাতাল থেকে রিলিজ হয়েছে। আর বললেন, জানেন, সেদিন আমি কী বন্ডে সই দিয়েছিলাম ? আমি বলি, জানিনা।

তিনি বলেন- সেখানে নাকি লেখা ছিলো যে এই রোগীয় কারনে যদি বিমানকে চট্টগ্রাম ফেরত আসতে হয়, তবে এর সম্পূর্ণ খরচ আমাকে দিতে হবে। তিনি আরও বললেন, আমি চিন্তা করেছি, আমার ছেলের যদি এমন হতো, আমি তো বন্ড দিয়েই নিতাম, তাহলে আপনার ছেলের জন্য দেবো না কেন ?

Dr. Sajjad Yusuff আল্লাহ মাঝে মাঝে ডাক্তাররূপে ফেরেস্তাদের পাঠান।

ফেসবুক স্ট্যাটাস লিঙ্ক : Shakoor Majid 

পাঠকের মন্তব্য