রিজার্ভ ডে’ তে গেলো ভারত-নিউজিল্যান্ড সেমি-ফাইনাল

রিজার্ভ ডে’ তে গেলো ভারত-নিউজিল্যান্ড সেমি-ফাইনাল

রিজার্ভ ডে’ তে গেলো ভারত-নিউজিল্যান্ড সেমি-ফাইনাল

বৃষ্টির কারণে ভারত ও নিউজিল্যান্ডের মধ্যকার বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনাল ম্যাচ গড়ায় রিজার্ভ ডে’ তে। প্রথম সেমি-ফাইনালে ভারত-নিউজিল্যান্ড দু’দলের কেউ না। আপাতত ‘জয়ীর’ নাম বৃষ্টি!

নিউজিল্যান্ড ইনিংসের ৪৬.১ ওভারের সময় বৃষ্টির তোড়ে সেই যে খেলা বন্ধ হলো, আর তা শুরু করা গেলো না। বুধবার, ১০ জুলাই রিজার্ভ ডে তে খেলা গড়িয়েছে। বৃষ্টিতে ঠিক যেখান থেকে খেলা থেমেছিলো, সেখান থেকেই রিজার্ভ ডেতে ফের খেলা শুরু হবে। অর্থাৎ নিউজিল্যান্ড তাদের ইনিংসের বাকি ৩.৫ ওভার ব্যাট করবে। তারপর ভারতের ইনিংসের শুরু হবে।

৫০ ওভারের এই ম্যাচটি অন্তত যাতে ২০ ওভারের ম্যাচও করা যায়- সেজন্য কাটঅফ সময় নির্ধারণ করা ছিলো ম্যানচেষ্টার সময় রাত ৮টা ৩৫ মিনিট পর্যন্ত। এই সময়ের মধ্যে খেলা শুরু করা সম্ভব না হলে ম্যাচটি রিজার্ভ ডে তে নিয়ে যাওয়া হবে।

অন্তত ২০ ওভারের ম্যাচ শুরু করতে মাঠ প্রস্তুতির জন্য ঘন্টাখানেক সময়ের প্রয়োজন ছিলো। সেই হিসেব অনুযায়ী ম্যানচেষ্টার সময় রাত সাড়ে সাতটার মধ্যেই বৃষ্টি থামতে হতে। কিন্তু দুপুরের পর থেকে শুরু হওয়া ঝিরি ঝিরি বৃষ্টি বিকেল ৫টা ২৫ মিনিটে থামলো ঠিকই। তবে ততক্ষনে পুরো মাঠে যে প্রচুর পরিমান পানি জমে গেছে- সেটা সেচে বের করতে যে অনেক সময় লাগার কথা।

বৃষ্টি পুরোপুরি থামার পর আম্পায়াররা প্রথমবারের মতো সাড়ে পাঁচটার সময় মাঠ পর্যবেক্ষণে বের হলেন। পরে দ্বিতীয়বারের মতো মাঠ পর্যবেক্ষনের জন্য সময় ঠিক করলেন স্থানীয় সময় ৬টা ১০ মিনিটে। কিন্তু দ্বিতীয়দফা পর্যবেক্ষনে নামার আগেই ফের ওল্ড ট্রাফোর্ডে বৃষ্টি নামে।

বাধ্য হয়েই আম্পায়াররা এই ম্যাচ রিজার্ভ ডে’ তে নিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিলেন। তবে রিজার্ভ ডে’ তেও যদি নির্ধারিত সময়ের মধ্যে খেলা শুরু করা না যায়, তাহলে অন্তত এই ম্যাচটি যাতে ২০ ওভারের করা যায়- সেই নিয়ম পালন করবেন আম্পায়ারা।

বুধবার, ১০ জুলাই ম্যানচেস্টারের আবহাওয়াও কোনো সুখবর দিচ্ছে না। বৃষ্টির আশঙ্কা থাকছেই। রিজার্ভ ডে’ তে অন্তত ২০ ওভারের ম্যাচ যাতে হতে পারে সেজন্য এদিন স্থানীয় সময় রাত ৮টা ৩৬ মিনিটের মধ্যে অবশ্যই খেলা শুরু করতে হবে।

আগেই জানা ২০ ওভারের ম্যাচ হলে সেখানে জিততে ভারতের জয়ের টার্গেট হবে ১৪৮ রান। আর যদি বৃষ্টিতে রিজার্ভ ডে’ তে খেলা না হয় তাহলে গ্রুপ পর্যায়ে বেশি পয়েন্ট থাকার সুবিধায় ভারত বিশ্বকাপের ফাইনালে নাম লেখাবে।

এই বিশ্বকাপে ভারত-নিউজিল্যান্ডের ম্যাচ মানেই বৃষ্টি সঙ্গী। ট্রেন্টব্রিজে দু’দলের গ্রুপ পর্যায়ের ম্যাচটিও বৃষ্টিতে পন্ড হয়েছিলো। টানা বৃষ্টিতে সেই ম্যাচের টস পর্যন্ত হয়নি!

ট্রেন্টব্রিজের পর এবার ম্যানচেস্টারে দু’দল মুখোমুখি হলো সেমিফাইনালে। সেখানেই বৃষ্টির উৎপাত ম্যাচের অর্ধেক সময় জুড়ে !

 

পাঠকের মন্তব্য