ভারতকে হারিয়ে ফাইনালে নিউজিল্যান্ড   

ভারতকে হারিয়ে ফাইনালে নিউজিল্যান্ড   

ভারতকে হারিয়ে ফাইনালে নিউজিল্যান্ড   

দলীয় ৫ রানে বিদায় টপ অর্ডারের তিন তারকা ব্যাটসম্যান রোহিত শর্মা, বিরাট কোহলি ও লোকেশ রাহুল। মহা বিপর্যয়! ২৪ রানে আউট অভিজ্ঞ দিনেশ কার্তিক। কিউই পেসের সামনে হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়া ভারতকে মাঝে কিছুটা আশার পথ দেখালেও পারেননি ঋষভ পন্ত ও হার্দিক পান্ডিয়া। বিশ্বকাপে দলকে বাঁচিয়ে রাখার সমস্ত দায়িত্ব পড়ে মহেন্দ্র সিং ধোনি ও রবিন্দ্র জাদেজার ওপর। নিউজিল্যান্ড শিবিরে কাঁপন ধরালেও শেষ পর্যন্ত দলকে জয়ের বন্দরে নিয়ে যেতে পারলেন না তারা।

ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে বুধবার ভারতকে ১৮ রানে হারিয়ে টানা দ্বিতীয়বারের মতো বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠলো নিউজিল্যান্ড। জয়ের জন্য ২৪০ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ২২১ রানে গুঁড়িয়ে যায় টিম ইন্ডিয়া।

মাত্র ২৪ রানেই চার উইকেট হারানো ভারতকে বিপর্যয় মুক্ত করতে হার্দিক পান্ডিয়ার সঙ্গে জুটি বেধে ভালোই লড়ছিলেন পন্ত। গড়েছিলেন ৪৭ রানের জুটি। কিন্তু ধৈর্যের প্রতীক হয়ে দাঁড়ানো এই ব্যাটারকে আর এগুতে দিলেন না বাঁহাতি স্পিনার মিচেল স্যান্টনার। তার করা ইনিংসের ২৩তম ওভারের পঞ্চম বলটি খেলতে গিয়ে ডিপ মিড-উইকেটে কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমের হাতে ধরা পড়েন পন্ত। এর আগে ৫৬ বল খেলে ৩২ রান করেন তিনি। টিম ইন্ডিয়ার রান দাঁড়ায় ৫ উইকেটে ৭১।

দলীয় স্কোরবোর্ডে আর ২১ রান জমা পড়তেই উইকেট ছাড়া হলেন পান্ডিয়া। সান্টনারের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হওয়ার আগে স্বভাব বিরুদ্ধ ব্যাটিং করে ৬২ বলে করেন ৩২ রান।

ভারতের ভরসা হয়ে জুটি মহেন্দ্র সিং ধোনি ও রবিন্দ্র জাজেদা। তাদের ১৩৭ রানের জুটিতে জয়ের স্বপ্ন দেখতে শুরু করে দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। এমন সময় দারুণ কামব্যাক নিউজিল্যান্ডের। ৫৯ বলে ৭৭ রান করা জাদেজাকে উইকেট ছাড়া করেন ট্রেন্ট বোল্ট। ভারতের সংগ্রহ তখন সাত উইকেটে ২০৮।

দলীয় স্কোরে আর ৮ রান জমা পড়তেই আউট শেষ ভরসা ধোনি (৫০)। তাতে পরাজয় খুব কাছে চলে আসে ভারতের। নিউজিল্যান্ডের বোলারদের মধ্যে ম্যাট হেনরি সর্বোচ্চ তিনটি উইকেট নেন। দুটি করে উইকেট নেন ট্রেন্ট বোল্ট ও মিচেল স্যান্টনার।

এর আগে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৮ উইকেটে ২৩৯ রানের সংগ্রহ দাঁড় করায় নিউজিল্যান্ড। আগের দিনের ২১১ রানের সঙ্গে আরো ২৮ রান যোগ করে কিউই দল।

পাঠকের মন্তব্য