রিফাত হত্যায় জড়িত সন্দেহে এক স্কুলছাত্র গ্রেপ্তার

রিফাত হত্যায় জড়িত সন্দেহে এক স্কুলছাত্র গ্রেপ্তার

রিফাত হত্যায় জড়িত সন্দেহে এক স্কুলছাত্র গ্রেপ্তার

বরগুনার আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে রাতুল নামে এক স্কুলছাত্রকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বুধবার রাতে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে পুলিশ জানালেও কখন, কোথা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে তদন্তের স্বার্থে তা জানায়নি।

রাতুল বরগুনার কলেজ রোড এলাকার একটি স্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্র।

এ বিষয়ে রিফাত শরীফ হত্যা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও বরগুনা সদর থানার ওসি (তদন্ত) হুমায়ুন কবির বলেন, “রাতুলকে রাতে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। আজ তাকে আদালতে হাজির করা হবে।” গত ৯ জুলাই সন্দেহভাজন অভিযুক্ত রাফিউল ইসলাম রাব্বি রিফাত শরীফ হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

এর আগে গত ১ জুলাই এ হত্যা মামলায় অভিযুক্ত ১১ নম্বর আসামি মো. অলিউল্লাহ অলি ও ভিডিও ফুটেজ দেখে শনাক্ত করা তানভীর একই আদালতে স্বেচ্ছায় রিফাত শরীফ হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দেয়। এরপর গত ৪ জুলাই ৪ নম্বর আসামি চন্দন ও ৯ নম্বর আসামি মো. হাসানও একই আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়। ৫ জুলাই একই আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয় ফুটেজ দেখে শনাক্ত হওয়া ও তদন্তে বেরিয়ে আসা অভিযুক্ত মো. সাগর ও নাজমুল হাসান।

এর আগে গত ১ জুলাই (সোমবার) আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় অভিযুক্ত ১১ নম্বর আসামি মো. অলিউল্লাহ অলি ও ভিডিও ফুটেজ দেখে শনাক্ত করা তানভীর একই আদালতে স্বেচ্ছায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

এর আগে রিফাত হত্যা মামলার ৪ নম্বর আসামি চন্দন, ৯ নম্বর আসামি মো. হাসান ও মো. সাগর ও নাজমুল হাসান একই আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

২৬ জুন স্ত্রীর সামনে সন্ত্রাসীরা প্রকাশ্যে রামদা দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে রিফাত শরীফকে। তার স্ত্রী আয়শা আক্তার মিন্নি হামলাকারীদের সঙ্গে লড়াই করেও তার স্বামীকে বাঁচাতে পারেননি। গুরুতর আহত রিফাতকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তির পর বিকেলে চিকিৎসাধীন মারা যান।

এ ঘটনায় ২৭ জুন নয়ন বন্ড, রিফাত, রিশান ফরাজীসহ ১২জনের হত্যা মামলা দায়ের করেন রিফাত শরীফের বাবা মো. আ. হালিম দুলাল শরীফ। হত্যা মামলার তদন্ত করতে গিয়ে বরগুনা থানা পুলিশ এজাহারনামীয় পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে। প্রধান আসামি সাব্বির আহমেদ নয়ন ওরফে নয়ন বন্ড পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়।

পাঠকের মন্তব্য