আমেরিকায় আঘাত করতে পারে উত্তর কোরিয়ার মিসাইল

আমেরিকায় আঘাত করতে পারে উত্তর কোরিয়ার মিসাইল

আমেরিকায় আঘাত করতে পারে উত্তর কোরিয়ার মিসাইল

উত্তর কোরিয়ার তৈরি মিসাইল আমেরিকার যে কোনও স্থানে আঘাত করতে পারে। একথা স্বীকার করল খোদ ওয়াশিংটন। সম্প্রতি আমেরিকা একথা জানিয়েছে।

কোরিয় উপ দ্বীপে মোতায়েন থাকা মার্কিন সেনাবাহিনী বা ইউএসএফকে উত্তর কোরিয়ার নতুন মিসাইলের বিষয়ে করা প্রথম আনুষ্ঠানিক পর্যালোচনায় বলেছে, ১২ হাজার ৮৭৪ কিলোমিটার পাল্লার হাউসাং-১৫ ক্ষেপণাস্ত্র আমেরিকার যে কোনও ভূখণ্ডে অনায়াসেই আঘাত করতে সক্ষম।

‘২০১৯ স্ট্রেটিজিক ডাইজেস্ট’ নামের একটি প্রতিবেদনে ইউএসএফকে জানিয়েছে, কোরিয় উপদ্বীপকে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ করার যে চেষ্টা আমেরিকা করছে তার থেকে অনেক দূরে অবস্থান করছে পিয়ংইয়ং। পিয়ংইয়ংকে সম্ভাব্য পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ করার জন্য আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন গত বছর থেকে এ পর্যন্ত তিনবার শীর্ষ বৈঠকে মিলিত হয়েছেন।

নিরস্ত্রীকরণের বিনিময়ে পিয়ংইয়ংয়ের ওপর থেকে সব ধরনের মার্কিন নিষেধাজ্ঞা ওঠে যাওয়ার বিষয়টি এসব শীর্ষ বৈঠকের মুল উদ্দেশ্য ছিল। তবে সব আলোচনাই ব্যর্থ হয়েছে। সম্প্রতি উত্তর কোরিয়ার প্রেসডেন্ট কিম জং উনকে একটি চিঠি ও পাঠান ট্রাম্প। উত্তর কোরিয়ার পরমাণু ওয়ারহেড বহনে সক্ষম ব্যলিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে ওয়াশিংটন ও পিয়ংইয়ংয়ের মধ্যে উত্তেজনা রয়েছে দীর্ঘ দিন ধরেই। ২০১৭ সালে ট্রাম্প ও কিম দু’জনই একে অপরকে পরমাণু বোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়ে পুরোপুরি ধ্বংস করে দেয়ার হুমকি দিয়েছেন।

পাঠকের মন্তব্য