পরিচয়পত্র যাচাইয়ের অ্যাপ ‘পরিচয়’ উদ্বোধন করলেন জয়

পরিচয়পত্র যাচাইয়ের অ্যাপ ‘পরিচয়’ উদ্বোধন করলেন জয়

পরিচয়পত্র যাচাইয়ের অ্যাপ ‘পরিচয়’ উদ্বোধন করলেন জয়

সরকারি ও বেসরকারি সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর সেবা দ্রুত এবং সহজে জনগণের কাছে পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে উদ্বোধন করা হয়েছে ‘পরিচয় ডট জিওভি ডট বিডি’ porichoy.gov.bd  নামে একটি গেটওয়ে সার্ভার। প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় ওয়েবসাইটটির উদ্বোধন করেন।

বুধবার (১৭ জুলাই) বিকেলে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি সার্ভারটির উদ্বোধন করেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন তথ্য ও প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক।

‘পরিচয়’ গেটওয়ে ওয়েবসাইটটি উদ্বোধন করে সজীব ওয়াজেদ জয় বলেন, ‘দেশের মানুষের জীবনে আমাদের টার্গেট প্রায় ৯০ শতাংশ সরকারি সেবা মোবাইলে থাকবে, আঙুলের সঙ্গে থাকবে। অর্থাৎ কোনো সরকারি অফিসে আসতে হবে না। সাধারণ নাগরিকদের জীবনের সহযোগিতা অর্থাৎ সময় বাঁচানোর কাজ, এটাই ডিজিটাল বাংলাদেশের মিশন।’

এই কাজের জন্য কয়েকটা জিনিসের মধ্যে আমাদের ন্যাশনাল আইডি সিস্টেমটা প্রয়োজন ছিল উল্লেখ করে আইডি সিস্টেমের কাজটি চমৎকার করাস জন্য ন্যাশনাল ডাটাবেজের কাজ সংশ্লিষ্টদের প্রতি কৃতজ্ঞতাও জানান জয়।

জয় বলেন, ‘চমতকার একটা ন্যাশনাল আইডি সিস্টেম কাজ হয়েছে, যেখানে বায়োমেট্রিক ইনফরমেশনও আছে নাগরিকদের।’ তিনি আরও বলেন, ‘আস্তে আস্তে আমাদের যত সরকারি সেবা এবং বেসরকারি যত সেবা নতুন নতুন ডিজিটালইজড হচ্ছে, তারা যখন নাগরিককে সার্ভিস দিতে যান, তখন নাগরিকের সেই পরিচয়, আসলে এটা কি সেই ব্যক্তি কি না? এই এনআইডিটি কি সত্য, এটা কি আসলেই তার নাম, এই ভেরিফিকেশনটা করার প্রয়োজন দাঁড়িয়ে যায়। অনেকদিন ধরে আমরা চেষ্টা করতে করতে এখন পাবলিক-প্রাইভেট পার্টনারশিপে আজকে আমাদের আইসিটি মিনিস্ট্রি এটা করতে পেরে খুবই আনন্দিত। এই সার্ভিস আজকে বাংলাদেশের মানুষের জন্য দিতে পেরে।’

মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা যায়, ‘পরিচয়’ হচ্ছে একটি গেটওয়ে সার্ভার, যা নির্বাচন কমিশনের জাতীয় ডাটাবেসের সঙ্গে সংযুক্ত। এটি এমন একটি অ্যাপ্লিকেশন প্রোগ্রামিং—যা সরকারি, বেসরকারি বা ব্যক্তিগত যেকোনো সংস্থার গ্রাহকদের তাদের জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) যাচাই করে নিমিষেই সেবা দিতে পারবে। এনআইডি যাচাই করার জন্য এখন থেকে আর আগের মতো তিন থেকে পাঁচ কর্মদিবস অপেক্ষা করতে হবে না।

বর্তমান প্রক্রিয়ায়, নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইটে লগ ইন করে সংস্থাগুলি জাতীয় পরিচয়পত্রের তথ্য ম্যানুয়ালি যাচাই করে থাকে। আবার অনেক সংস্থা এনআইডি যাচাইকরণও করে না, কারণ নির্বাচন কমিশনের এনআইডি ডাটাবেসের অ্যাক্সেস তাদের নেই। যা গ্রাহকদের জাল বা সঠিক আইডি যাচাই করার জন্য অনুমতি দেয়।

‘পরিচয়’ গেটওয়ে ব্যবহার করলে জাতীয় পরিচয়পত্র যাচাই করার জন্য কোনো মানুষের প্রয়োজন নেই। যেকোন প্রতিষ্ঠান সফটওয়্যারের মাধ্যমে পরিচয় গেটওয়ে সার্ভারের সঙ্গে সংযোগ স্থাপন করলে জাতীয় পরিচয়পত্র শনাক্তের ফলাফল সঙ্গে সঙ্গেই অটোমেটিকভাবে পেয়ে যাবে। এটি দেশের জনগণের জন্য এমন দুর্দান্ত সুবিধা আনবে যারা এখন ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খোলা, ডিজিটাল ওয়ালেট একাউন্ট খোলা বা যে কাজগুলোতে জাতীয় পরিচয়পত্র নিবন্ধনের প্রয়োজন হয় তারা খুব উপকৃত হবে। তাদের জন্য অনেক সহজ ও সময় সাশ্রয় হবে।

এর ফলে নিজের নাম নিবন্ধন করে যাচাইয়ের জন্য আর চার-পাঁচদিন অপেক্ষা করতে হবে না, ভোগান্তিও পোহাতে হবে না। এটি সঙ্গে সঙ্গেই জাল আইডিগুলি শনাক্ত করে জালিয়াতি প্রতিরোধ করবে এবং পরিসেবাগুলিকে আরও নিরাপদ করবে। ‘পরিচয়’ গেটওয়ে গোপনীয়তা ও নিরাপত্তা বজায় রাখবে এবং জাতীয় পরিচয়পত্র যাচাইয়ের খরচ কমিয়ে কাজকে দ্রুত করবে।

পাঠকের মন্তব্য