পাইকগাছায় চিংড়ি ঘের দখল চেষ্টা : সংঘর্ষে আহত ৪ 

পাইকগাছায় চিংড়ি ঘের দখল চেষ্টা : সংঘর্ষে আহত ৪ 

পাইকগাছায় চিংড়ি ঘের দখল চেষ্টা : সংঘর্ষে আহত ৪ 

পাইকগাছায় ভরা মৌসুমে চিংড়ি ঘের দখল করতে গিয়ে বাঁধা দেয়ায় দু’দফা সংঘর্ষে নারীসহ ৪জন আহত হয়েছে। এ ঘটনায় দু’পক্ষই থানায় অভিযোগ করলে পুলিশ বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা করছে বলে জানা গেছে। এ নিয়ে দুপক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। ঘটনাটি ঘটেছে, গদাইপুর ইউপির বাইশারাবাদ মৌজায় পানি উন্নয়ন বোর্ড রাস্তার কাছে। 

পৌরসভার বাতিখালীর মৃত হাজরাপদ মন্ডলের ছেলে ঘের মালিক অরুন কুমার মন্ডল জানান, মঠবাটী ঘোষালের তোবারক হোসেন ভুট্টোর ইজারাকৃত বাইশাবাদ মৌজায় ৮ বিঘার একটি ঘের করে আসছি। তিনি অভিযোগ করেন, তিন পূর্বে সন্ধ্যার পূর্ব মুহুর্তে গদাইপুর ইউপির অনুপ ঘোষ ও তার ভাইপো সুমন দলবল নিয়ে লাঠি, সোটা নিয়ে আমার চিংড়ি ঘেরে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে। এসময় বাঁধা দিতে গেলে অনুপ ও তার দলবল আমার স্ত্রী ও আমাকে বেদম মারপিট করে জলে ফেলে চুবিয়ে আহত করে। এ খবর জানাজানি হলে পরবর্তীতে অরুনের ছেলে বিপ্লব মন্ডল ও তার পরিবারের সদস্যরা ঘটনাস্থলে গেলে অনুপ গংদের প্রতিহত করার চেষ্টা করে। এ সময় সংঘর্ষ হলে অনুপ ও তার ভাইপো সুমন জখম হয়। স্থানীয়রা দু’পক্ষকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এ ঘটনা সম্পর্কে অরুনের স্ত্রী উর্মিলা অভিযোগ করেন, অনুপ দলবল নিয়ে ঘেরের বাসায় আক্রমন করে আমার মাথায় ও বুকে লাথি মেরে জলে ফেলে দিয়ে স্বামীর উপর হামলা ও মারপিট চালায়। আমি ঠেকাতে আসলে ওরা আমাকে জলে ফেলে চুবাই। এক সময় আমার চেচামেচিতে পথচারী এক মটরসাইকেল চালক আমাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়। এ ঘটনায় ঘের মালিক অরুন মন্ডল বাদী হয়ে অনুপ ঘোষ গংদের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দিয়েছেন। অন্যদিকে, অনুপ ঘোষ বাদী হয়ে অরুপ মন্ডল গংদের বিরুদ্ধেও থানায় পাল্টা অভিযোগ দিয়েছেন। এনিয়ে থানাপুলিশ বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা করছে বলে জহানা গেছে। এ বিষয়ে ওসি এমদাদুল শেখ জানান, ভরা মৌসুমে বেআইনীভাবে কোন কিছু করা যাবে না বলে মন্তব্য করেন। 

পাঠকের মন্তব্য