পিবিআই-সিআইডির তদন্ত চেয়ে হাইকোর্টে রিট

পিবিআই-সিআইডির তদন্ত চেয়ে হাইকোর্টে রিট

পিবিআই-সিআইডির তদন্ত চেয়ে হাইকোর্টে রিট

বরগুনার রিফাত হত্যা মামলায় পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) বা সিআইডির তদন্তের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট আবেদন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৫ জুলাই) হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এই রিট দায়ের করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দ।

আবেদনে উদাহরণ হিসেবে ফেনীর নুসরাত হত্যা মামলা ঘটনাটি উল্লেখ করা হয়েছে। বলা হয়, ওই হত্যাকাণ্ডটি তদন্ত করেছে পিবিআই। তাই রিফাত হত্যাকাণ্ডের ন্যায়-বিচারে স্বার্থে পিবিআই অথবা  সিআইডিকে দায়িত্ব ভার দেয়া হোক।

স্থানীয় পুলিশ এমন (রিফাত হত্যা) স্পর্শকাতর মামলার তদন্ত করতে অভিজ্ঞ নয়। বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলা, ২১ আগস্ট  গ্রেনেড হামলা মামলাসহ বড় ধরনের মামলায় সিআইডি তদন্ত করে। সিআইডির কাজ হলো তদন্ত করা। কিন্তু স্থানীয় পুলিশের কাজ আসামিদের গ্রেফতার করা। সুতরাং রিফাত হত্যা মামলাও ন্যায় বিচারের স্বার্থে পিবিআই বা সিআইডি দ্বারা তদন্তের নির্দেশ দেয়া হোক।

আবেদনে বলা হয়, রিফাত হত্যা মামলায় তার স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি একমাত্র ছাড়া কোন দেখা বা চাক্ষস সাক্ষি নেই। অন্যদিকে মামলার প্রধান আসামি নয়ন বন্ড বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়। এ অবস্থায় দেখা সাক্ষিকে আসামি করলে প্রকৃত বিচার হবে না। সাক্ষির জবানবন্দি ১৬৪ ধারায় নেয়া যাবে কিন্তু আসামি হিসেবে জবানবন্দি নেয়া যাবে না। অথচ মিন্নিকে ৫ দিনের রিমান্ড দেয়া হয় এবং তাকে ভয়-ভীতি দেখিয়ে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি নেয়া হয়। তাই মিন্নির গ্রেফতার ও ১৬৪ ধারার জবানবন্দি অবৈধ হবে বলেও রিটে উল্লেখ করা হয়েছে।

পাঠকের মন্তব্য