ময়মনসিংহ ধোবাউড়ায় ছেলের ছুরির আঘাতে গুরুতর আহত মা

মা

মা

ময়মনসিংহের ধোবাউড়া উপজেলায় ছেলের ছুরিকাঘাতে মরিয়ম বেগম (৪৮) নামে এক মা গুরতর আহত হয়েছেন। তবে ছুরিকাঘাতের পর পরই থানায় এসে আত্মসমর্পণ করেছেন ছেলে জাহাঙ্গীর (১৯)।

রবিবার (২৮ জুলাই) দুপুরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতালের সার্জারি বিভাগে সফল অস্ত্রপাচার শেষে পোষ্ট ইনটেন্সিভ কেয়ার ইউনিটে রাখা হয়েছে। এরআগে গতকাল শনিবার রাতে উপজেলার গামারীতলা ইউনিয়নের চকপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। রাত পৌনে ১২ টার দিকে মাকে ছুরি মেরে ধোবাউড়া থানায় এসে আত্মসমর্পণ করেন ওই ছেলে।ধোবাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী আহাম্মদ মোল্লা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মা মরিয়ম বেগম প্রায়ই ছেলেকে বকাঝকা করতেন। এ কারণে ছেলে ক্ষুব্ধ হয়ে শনিবার রাতে মাকে ছুরিকাঘাত করেন। পরে একটি মোটরসাইকেলে চড়ে রাত পৌনে ১২টার দিকে ধোবাউড়া থানায় এসে মাকে ছুরিকাঘাত করার কথা স্বীকার করেন জাহাঙ্গীর। ঘটনার কথা শুনে জাহাঙ্গীরের বাবা আবুল কাশেমকে ফোন করে ঘটনার সত্যতা পেয়ে ছেলেকে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়।তিনি আরও বলেন, আহত মরিয়মকে রাতেই ধোবাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাঁকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলেও জানিয়েছেন পুলিশের এই কর্মকর্তা।

পাঠকের মন্তব্য