আ'লীগের এমপি-মন্ত্রীদের মস্তিষ্ক পরীক্ষা করা দরকার

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, গতকাল (বৃহস্পতিবার) সরকারের এক মন্ত্রী বলেছেন দেশ উন্নত হচ্ছে বলেই ডেঙ্গু হচ্ছে। ডেঙ্গু একটি এলিট শ্রেণির মশা। বাংলাদেশ যেহেতু এখন উন্নত হচ্ছে তাই এখানেও ডেঙ্গু হচ্ছে। মন্ত্রীর এই বক্তব্যকে ‘টক অব দি সেঞ্চুরি’ নাকি ‘শক অব দি সেঞ্চুরি’ বলবো এ নিয়ে দ্বিধায় আছি। আসলে ডেঙ্গু নয় আওয়ামী লীগের এমপি-মন্ত্রীদের মস্তিষ্ক পরীক্ষা করা দরকার। তারা সকালে এক কথা বলেন, বিকেলে আরেক কথা বলেন। 

শুক্রবার নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

রিজভী বলেন, দেশ উন্নত হলে যদি রোগের প্রকোপ বৃদ্ধি পায় তাহলে লন্ডন, নিউইয়র্ক, প্যারিস, কোপেনহেগেন ইত্যাদি শহরে হাজার হাজার মানুষ ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মারা যেত। স্থানীয় সরকার মন্ত্রী কোন ব্যুরো থেকে এই তথ্য পেয়েছেন, তা জানালে দেশবাসী উপকৃত হতো। মন্ত্রী বোধহয় আসল কথাটি বলতে চেয়েছেন একটু অন্যভাবে যে, উন্নয়নের নামে দুর্নীতির বিপুল পরিমাণ টাকা পকেটস্থ হলেই ডেঙ্গুর মতো প্রাণবিনাশী বালা-মসিবত দেশে বিস্তার লাভ করে।

বিবিসিকে দেওয়া প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের সমালোচনা করে বিএনপির এই নেতা আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী বিবিসির সাক্ষাৎকারে বলেছেন-এডিস মশা নিয়ে মিডিয়ার বাড়াবাড়িতে মানুষের মধ্যে আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। আসলে মেয়র থেকে শুরু করে মন্ত্রীরা এমনকি প্রধানমন্ত্রীও ডেঙ্গু আক্রান্ত মানুষের দুঃখ-দুর্দশা নিয়ে ঠাট্টা-মশকরা করছেন। অথচ সারাদেশের হাসপাতালগুলোতে তিল ধারণের জায়গা নেই।

অভিযোগ করে রিজভী বলেন, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার জীবন নিয়ে সরকার মাস্টারপ্ল্যানে ব্যস্ত। আদালতের কথাতেই বোঝা যাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর কথা ছাড়া কিছু হবে না।
সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন ও সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ প্রমুখ।

পাঠকের মন্তব্য