এবার হজ পালনে অংশ নিচ্ছেন প্রায় ২৫ লাখ মুসল্লি

এবার হজ পালনে অংশ নিচ্ছেন প্রায় ২৫ লাখ মুসল্লি

এবার হজ পালনে অংশ নিচ্ছেন প্রায় ২৫ লাখ মুসল্লি

শুক্রবার থেকে পবিত্র হজের মূল আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়েছে। সারা দিন মিনা শহরের তাবুতে অবস্থান করেছেন হজযাত্রীরা। স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার রাতে এশার নামাজের পর থেকে পবিত্র হজ পালনের উদ্দেশ্যে মিনার পথে রওনা হন লাখো মুসল্লি।

কেউ বাস বা গাড়িতে, আবার কেউ-কেউ পায়ে হেটেই তাবুর শহর মিনায় পৌঁছান। আগামী কয়েক দিন মিনা, আরাফাত, মুজদালিফা ও মক্কায় অবস্থান করে হজ সম্পন্ন করবেন ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা।

এবার হজ পালন করছেন প্রায় ২৫ লাখ মানুষ। এ বছর ইরান থেকে হজ পালন করতে  গেছেন প্রায় সাড়ে ছিয়াশি হাজার মুসলমান। বাংলাদেশ থেকে হজে গেছেন ১ লাখ ২৭ হাজার জন। ৮ জিলহজ, সারাদিন মিনায় অবস্থান শেষে পরদিন আরাফাতের উদ্দেশ্যে রওনা হন মুসল্লিরা। মুজদালিফায় রাত্রি যাপন শেষে শয়তানকে মারার জন্য পাথর সংগ্রহ করে ১০ জিলহজ আবারও মিনায় ফিরবেন তারা। এরপর, ১১ ও ১২ তারিখে হজের বাকি আনুষ্ঠানিকতা শেষ করবেন হাজিরা।

হজ পালনের মধ্যদিয়ে একজন মুসলমানের আজন্ম লালিত ইচ্ছা বাস্তব রূপ লাভ করে। তবে আর্থিক ও শারীরিকভাবে সক্ষম পুরুষ ও নারীর ওপরই কেবল হজ ফরজ।

হজ সম্পর্কে পবিত্র কুরআনের আল ইমরানের ৯৭ নম্বর আয়াতে আল্লাহতাআলা বলেছেন, ‘আল্লাহর তরফ থেকে সেই সব মানুষের জন্য হজ ফরজ করে দেওয়া হয়েছে, যারা তা আদায়ের সামর্থ্য রাখে।’ ইসলামি পরিভাষায় হজ হলো নির্দিষ্ট সময়ে নির্ধারিত স্থানে বিশেষ কিছু কর্ম সম্পাদন করা।

হজে গিয়ে একজন মুসলমানের মুখের অন্যতম ভাষা হয়ে দাঁড়ায় ‘লাব্বায়িক আল্লাহুম্মা লাব্বায়িক’ অর্থাৎ হে আল্লাহ আমি হাজির, হে আল্লাহ আমি তোমার দরবারে হাজির।

পাঠকের মন্তব্য