জাতীয় 'শোক দিবস' পরিবর্তে 'আনন্দ দিবস' লিখে ক্যালেন্ডার !   

ক্যালেন্ডারে 'শোক দিবস' এর পরিবর্তে 'আনন্দ দিবস' লিখে ক্যালেন্ডার !   

ক্যালেন্ডারে 'শোক দিবস' এর পরিবর্তে 'আনন্দ দিবস' লিখে ক্যালেন্ডার !   

নোয়াখালী প্রতিনিধি : নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার কেন্দুরবাগ বাজারে অবস্থিত অক্সফোর্ড আইডিয়াল স্কুলের চলতি বছরের ক্যালেন্ডারে 'জাতীয় শোক দিবস'কে 'জাতীয় আনন্দ দিবস' লেখার প্রতিবাদে স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. নুর হোসেনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন বেগমগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা জাহিদ হাসান শুভ। বৃহস্পতিবার দুপুরে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে বাদী হয় মামলাটি করেন তিনি।

শুভ বলেন, "অক্সফোর্ড আইডিয়াল স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. নুর হোসেন জিরতলী ইউনিয়নের জামায়াতের আমির ও বেগমগঞ্জ উপজেলা জামাতের অর্থ বিষয়ক সম্পাদক। বিভিন্ন সময় তিনি সরকার ও মানবতাবিরোধীদের বিচারের সময় নাশকতার ঘটনার সাথে জড়িত ছিলেন। ওই স্কুলের চলতি বছরের ক্যালেন্ডারে 'জাতীয় শোক দিবস' এর পরিবর্তে 'জাতীয় আনন্দ দিবস' লিখে ছাপিয়েছেন তিনি। এতে করে তিনি রাষ্ট্রদ্রোহী অপরাধ করেছেন। এসব ক্যালেন্ডার শিক্ষার্থীদের মাঝে বিলিও করা হয়। পরে তা অনেকের চোখে পড়েছে এবং এ নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। এর প্রতিবাদ করা আমার নৈতিক দায়িত্ব বলে মনে হয়েছে। আমরা যে এলাকায় থাকি সেখানকার একটা স্কুলের ক্যালেন্ডারে জাতীয় শোক দিবস নিয়ে এমন উপহাস কেউ-ই মেনে নেবে না বলে আমার বিশ্বাস। আর এটা অনিচ্ছাকৃত ভুল নয়। 

কারণ আগেই বলেছি তিনি স্বাধীনতাবিরোধীদের পক্ষের লোক এবং তার বিরুদ্ধে এমন অনেক অভিযোগ রয়েছে। কাজেই ইচ্ছাকৃতভাবে জাতীয় শোক দিবসকে এভাবে উপহাস করা হয়েছে। এ বিষয়ে বেগমগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হারুনুর রশিদ চৌধুরী জানান, নুর হোসেনের বিরুদ্ধে থানায় কোনো মামলা হয়নি। তবে শুনেছি আদালতে মামলা হয়েছে। মামলাটি থানায় আসলে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে। 

এ বিষয়ে জানার জন্যে বেগমগঞ্জ উপজেলার অক্সফোর্ড আইডিয়াল স্কুলের প্রধান শিক্ষককে একাধিকবার ফোন দেয়া হলেও ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।  

জানা গেছে, এমন প্রধান শিক্ষককে গ্রেফতার করে শাস্তির আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন বেগমগঞ্জের অনেকে। ঘটনাটি সেখানে বেশ আলোচনার সৃষ্টি করেছে। মামলা করায় অনেকে জাহিদ হাসান শুভকে ধন্যবাদও জানান। 

পাঠকের মন্তব্য