প্রযুক্তির দুনিয়ায় বিপ্লব, সৌরশক্তিতেই চার্জ হবে মোবাইল

প্রযুক্তির দুনিয়ায় বিপ্লব, সৌরশক্তিতেই চার্জ হবে মোবাইল

প্রযুক্তির দুনিয়ায় বিপ্লব, সৌরশক্তিতেই চার্জ হবে মোবাইল

সারাদিন ইচ্ছে মতো স্মার্টফোন ব্যবহার করার পরও চার্জ শেষ না হলে কী আনন্দই না হত, তাই না? কিন্তু তেমনটা তো আর সম্ভব নয়। তাই তো রাস্তা ঘাটে সঙ্গে নিয়ে ঘুরতে হয় পাওয়ার ব্যাংক। আর সেটি না থাকলেই চার্জ শেষ হলেই মোবাইল সুইচ অফ হয়ে যায়। খোঁজ চলতে থাকে চার্জিং পয়েন্টের। তখন আবার সঙ্গে চার্জার না থাকলে আরও বিপদ। কিন্তু এবার এই সব সমস্যার সমাধান করে দিতে চলেছে শাওমি। স্মার্টফোনের বাজারে কান পাতলে অন্তত এমন খবরই শোনা যাচ্ছে।

ভাবছেন তো কীভাবে এমনটা সম্ভব? একটি ইংরাজি সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, চিনা মোবাইল প্রস্তুতকারক কোম্পানিটি এমন একটি মোবাইল তৈরির চেষ্টা করছে যা সৌরশক্তিতেই চার্জ হয়ে যাবে। বিশ্বে প্রথমবার এমন উদ্যোগ নেওয়া হল। ওয়ার্ল্ড ইন্টেলেকচুয়াল প্রপারটি অরগানাইজার বা WIPO-র সঙ্গে জুটি বেঁধে এমন ফোন তৈরির কাজ করছে চিনা সংস্থা। স্মার্টফোনটির পিছন দিকে সোলার চার্জার প্যানেল থাকবে। ডায়াগ্রাম অনুযায়ী, ডিভাইসটির সামনের দিকে থাকবে বেজেল-লেস ডিসপ্লে। আর পিছনের দুই তৃতীয়াংশ থাকবে সোলার প্যানেল। গ্লাস প্যানেলের নিচে। তবে এই প্যানেলটি থাকা সত্ত্বেও খুব চওড়া দেখাবে না ফোনটিকে।

তবে কথায় বলে না, কিছু পেতে গেলে কিছু হারাতেও হয়? ঠিক সেভাবেই এই ডিভাইসে থাকবে না ফ্রন্ট ক্যামেরা। তাছাড়া হেডফোনের পিন ঢোকানোর জ্যাকও নেই এই ফোনে। তবে কীভাবে ফ্রন্ট ক্যামেরা এই ফোনে রাখা সম্ভব হয়, তা পরীক্ষা নিরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে। এবার প্রশ্ন হল, সৌরশক্তির মাধ্যমে কত দ্রত ফোনটি চার্জ হবে? সে বিষয়ে এখনও কিছু জানানো হয়নি। ফোনটি বাজারে এলেই তা স্পষ্ট হবে।

OnePlus 7 Pro এবং Redmi K20 Pro মডেলগুলি বর্তমানে অত্যন্ত দ্রুত চার্জ হয়। এমনকী ওয়্যারলেস চার্জারও বাজারে দেদার বিক্রি হচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে সোলার চার্জারের ফোনের প্রতি এদেশের ক্রেতারা কতটা আকৃষ্ট হন, সেটাই এখন দেখার।

পাঠকের মন্তব্য