সোনারগাঁবাসীর নিরাপত্তার জন্য থানা পুলিশ ৩ স্তরে কাজ করবে

সোনারগাঁবাসীর নিরাপত্তার জন্য থানা পুলিশ ৩ স্তরে কাজ করবে

সোনারগাঁবাসীর নিরাপত্তার জন্য থানা পুলিশ ৩ স্তরে কাজ করবে

নারায়মগঞ্জের সোনারগাঁ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান মনির বলেছেন, আগামী সোমবার ঈদুল আযহার পূর্ববতি ও পরবতি কয়েকদিন সোনারগাঁবাসীর নিরাপত্তায় ৩ স্তরে কাজ করবে সোনারগাঁ থানা পুলিশ। এ জন্য পুলিশের সকল ছুটি বাতিল করা হয়েছে। ইতিমধ্যে সোনারগাঁ থানা ও ফাঁড়ি পুলিশকে এ ব্যাপারে কাউন্সিলিং করা হয়েছে। এছাড়া যারা ঈদের ছুটিতে বাড়িতে যাবেন তাদের বাসাবাড়ি নিরাপত্তার জন্যও পুলিশ সচেষ্ট থাকবে।

এ সময় তিনি আরো বলেন, আগামীকাল সোমবার মুসলিম উম্মাহ ২য় সর্ববৃহৎ  ধর্মীয় উৎসব ঈদুল আযহা। এ ঈদুল আযহাকে সামনে রেখে সোনারগাঁবাসীর নিরাপত্তার জন্য ঈদের ২দিন আগ থেকে ঈদের পরবর্তি ২দিন পর্যন্ত থানা পুলিশ সোনারগাঁবাসীর নিরাপত্তার জন্য ৩ স্তরে কাজ করবে। এজন্য আমাদের পুলিশ সুপার আমাদের সকল থানা ও ফাঁড়ি পুলিশের ছুটি বাতিল করেছেন। আমাদের পুলিশ ঈদের ২দিন আগ থেকে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় পিকেট ডিউটি করবে। এজন্য তারা গতকাল শুক্রবার সকাল থেকে সোনারগাঁয়ের বিভিন্ন এলাকায় নিয়মিত টহল দিচ্ছে। এছাড়া নিরাপত্তা অংশ হিসেবে পুলিশ উপজেলার গুরুত্বপূর্ন এলাকাগুলোতে পুলিশ মোতায়েন রাখা হয়েছে। যেমন কাঁচপুর, মেঘনা শিল্পাঞ্চল, মোগরাপাড়া বাসষ্ট্যান্ড উপজেলা গুরুত্বপূর্ন রাস্তাগুলোতে টহল পুলিশ বসা রয়েছে। নিরাপত্তার স্বার্থে ২য় স্তরে পুলিশের মোটল সাইকেল টহল অব্যাহত থাকবে। মোটর সাইকেল করে পুলিশ উপজেলা বিভিন্ন জনবসতিপূর্ন এলাকাগুলোর গ্রাম ও মহল্লাগুলোতে নিয়মিত গিয়ে টহল দিবে। যাতে নাশকতাকারী, ডাকাত ও চোরেরা কোন অপ্রাতিকর ঘটনা না ঘটাতে পারে। ৩য় স্তরে পুলিশ সাদা পোশাকে বিভিন্ন এলাকায় টহল দিবে। যাতে করে অপরাথীরা কোন অপরাধ ঘটাতে চাইলে পুলিশ সাধারণ মানুষের মধ্যে মিশে অপরাধীদের আটক করতে সক্ষম হয়। এছাড়া উপজেলা বড় বড় ঈদ জামাতগুলোতে আমি ও আমার নেতৃত্বে মুসল্লিদের নিরাপত্তার জন্য পুলিশ মোতায়েত থাকবে।

এ সময় তিনি সোনারগাঁবাসীর  উদ্দেশ্যে বলেন, যারা ঈদ করতে দেশের বাড়িতে বা অন্য কোথায়ও যায় তারা যেন যাওয়ার আগে তাদের নগদ টাকা-পয়সা, স্বর্ণালংকার ও মুল্যবান জিনিসপত্র বাসায় না রেখে সাথে নিয়ে যায়। এছাড়া বাসা বাড়ি ত্যাগ করার আগে দরজা-জানালা ভাল করে লক করে বের হন। এছাড়া ডেঙ্গু রোগ ছড়ানো এডিস মশা যাতে বংশ বিস্তার না করতে পারে সেজন্য বাড়ীর কোথায় যাতে পানি না জমে থাকে সেজন্য সবকিছু ঠিকমতো চেক করে বাড়ি থেকে বের হন এবং বাসাবাড়ি থেকে বের হবার আগে পানির ট্যাপ ও গ্যাসের চুলা ভাল ভাবে বন্ধ করে বের হবার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন। আবার বাসাবাড়িতে ফেরার পর দরজা জানালা খুলে ঘরের ভেতর আটকে থাকা বাতাস বের করে গ্যাসের চুলা জ্বালাবেন।অবশেষে  তিনি সোনারগাঁবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়ে পরিবার ও পরিজনকে নিয়ে ভালভাবে ঈদ করতে পারেন সেজন্য শুভ কামনা করেন।

পাঠকের মন্তব্য