নাসা থেকে ডাক পেল পশ্চিমবঙ্গের পুরুলিয়ার কিশোরী

নাসা থেকে ডাক পেল পশ্চিমবঙ্গের পুরুলিয়ার কিশোরী

নাসা থেকে ডাক পেল পশ্চিমবঙ্গের পুরুলিয়ার কিশোরী

ছোট্ট কিশোরীর স্বপ্ন বড় হয়ে সে মহাকাশে যাবে। তার আগেই যে সে তার স্বপ্নের এতো কাছাকাছি যেতে পারবে সেটা হয়তো ভাবেনি ভারতের পশ্চিমবঙ্গের পুরুলিয়া শহরের কিশোরী অভিনন্দা ঘোষ। একেবারে যেন চাঁদ হাতে এসে ধরা দিয়েছে।

দিল্লির একটি বেসরকারি সংস্থা আয়োজিত বিজ্ঞান অলিম্পিয়াডে সফল হয়েই সুযোগ মিলেছে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় মহাকাশ সংস্থা নাসায় পাড়ি দেয়ার। নবম শ্রেণির ওই শিক্ষার্থী বলেন, খবরটা পাওয়ার পর আনন্দে কিছুক্ষণ কথাই বলতে পারিনি। নাসায় যাওয়ার স্বপ্ন এতো দ্রুত সফল হবে ভাবতেই পারছি না।

তেলকলপাড়ার বাসিন্দা অভিনন্দা পুরুলিয়া শহরের একটি বেসরকারি ইংরেজি মাধ্যমে পড়াশুনা করছে। তার বাবা সজল ঘোষ ও মা সুস্মিতা রায় চৌধুরী দু'জনেই ইংরেজির শিক্ষক। অভিনন্দার বাবা জানিয়েছেন, তার মেয়ের ছোটবেলা থেকে পড়াশোনাই ধ্যানজ্ঞান। চতুর্থ শ্রেণি থেকে প্রতি বছর অলিম্পিয়াডে অংশ নিচ্ছে সে। আলাদাভাবে কোনও প্রশিক্ষণ নেয়নি।

অভিনন্দার কথায়, পরীক্ষা নিয়ে এখন আর ভয় কাজ করে না। পরীক্ষাটা উপভোগ করছি। অল্প সময়ে অনেকগুলো উত্তরের মধ্য থেকে ঠিক উত্তরটা বেছে নিতে হয়েছিল। আর পরীক্ষার প্রস্তুতি নিতে সব ধরনের সহায়তা করেছেন স্কুলের শিক্ষকরাই।

কৃতী ছাত্রী হিসেবে স্কুলেও তার বেশ নামডাক। গত নভেম্বরে দিল্লির একটি বেসরকারি সংস্থার বিজ্ঞান অলিম্পিয়াডে স্কুল ভিত্তিক পরীক্ষায় অংশ নেয় অভিনন্দা। সফল হয়ে সেখান থেকে রাজ্যস্তরে। আগস্টের শুরুতে দিল্লিতে ইসলামিক কালচার সেন্টারে সর্বভারতীয় স্তরের পরীক্ষা নেয়া হয়।

অভিনন্দার স্কুলের শিক্ষক সুদীপচন্দ্র দাস জানান, সর্বভারতীয় স্তরের পরীক্ষায় প্রায় ১৮ লাখ প্রতিযোগী ছিল। সফলদের শিক্ষামূলক ভ্রমণে নাসার কেনেডি স্পেস সেন্টারে নিয়ে যাওয়া হবে। ওই দলেই সুযোগ পেয়েছে অভিনন্দা। এখন তার স্বপ্ন লাল মাটির দেশ থেকে একদিন সে পাড়ি জমাবে লাল রঙের গ্রহে।

পাঠকের মন্তব্য