‘রোহিঙ্গাদের সমাবেশের খবর জানতো না সরকার’

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন

রোহিঙ্গা সঙ্কটের দুই বছর পূর্তি ও পাঁচ দফা দাবিতে আয়োজিত লক্ষাধিক রোহিঙ্গার উপস্থিতিতে সমাবেশের খবর সরকার জানতো না বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন। তিনি বলেন, কোনো ধারণা ছিল না, আমরা মিডিয়ার সংবাদ থেকেই এটা দেখতে পাই। ভবিষ্যতে এ ধরনের কোন আন্দোলন বা সমাবেশ করতে দেওয়া হবে না।

সোমবার (২৬ আগস্ট) জাতীয় জাদুঘরে শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেন।

রোহিঙ্গাদের সমাবেশ আয়োজনের ব্যাপারে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে কথা হয়েছে বলে জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

২২ আগস্ট রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন না হওয়ার সম্পূর্ণ দায় মিয়ানমারের দাবি করে ড. মোমেন বলেন, কারণ, তারা রোহিঙ্গাদের আশ্বস্ত করতে পারেনি। তারা বোঝাতে পারেনি যে, স্বদেশে ফিরে গেলে রোহিঙ্গারা নিরাপত্তা ও নাগরিক সুযোগ-সুবিধা পাবেন।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সফর করা রোহিঙ্গা নেতা বাংলাদেশি পাসপোর্ট নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র সফর করেছে কিনা জানতে চাইলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তিনি বাংলাদেশি পাসপোর্ট ব্যবহার করেননি। কোনো দেশ চাইলে পাসপোর্ট ছাড়াও অনুমতি নিয়ে সে দেশে যাওয়া যায়।

রোহিঙ্গা সঙ্কটের দুই বছর পূর্তি ও পাঁচ দফা দাবিতে রোববার (২৫ আগস্ট) সকালে সমাবেশ করেন রোহিঙ্গারা। নিজেদের অধিকার আদায়ে ঐক্যবদ্ধ থাকার ঘোষণাও দেন সমাবেশ থেকে।

২৫ আগস্ট রোহিঙ্গা সঙ্কটের দুই বছর পূর্তি। ২০১৭ সালের এ দিনে ভয়াবহ হত্যাযজ্ঞের ঘটনা ঘটে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে। এরপর পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেন রোহিঙ্গারা। বর্তমানে বাংলাদেশে আশ্রিত রোহিঙ্গার সংখ্যা ১১ লক্ষাধিক।

পাঠকের মন্তব্য