এনআরসি ভারতের অভ্যন্তরীণ ব্যাপার : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

এনআরসি ভারতের অভ্যন্তরীণ ব্যাপার : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

এনআরসি ভারতের অভ্যন্তরীণ ব্যাপার : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ভারতকে আমরা বিশ্বাস করি, আসামের জাতীয় নাগরিকপঞ্জি (এনআরসি) নিয়ে ভারত আমাদের কোনো সমস্যা করবে না বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ. কে. আব্দুল মোমেন।

তিনি বলেন, বিশ্বের মধ্যে ভারত একটি ডায়নামিক রাষ্ট্র। আমাদের বিভিন্ন সমস্যা আসবে সেগুলো উতরে যাব। সম্প্রতি বাংলাদেশ সফরে করে যাওয়া ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আমাদের বলেছেন, এনআরসি ভারতের অভ্যন্তরীণ ব্যাপার। এ বিষয়ে ভারত আমাদের কোনো সমস্যা দেবে না। আর আমরা ভারতকে বিশ্বাস করি।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী শনিবার (৩১ আগস্ট) মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরে ঢাকা ডক ল্যাব শিরোনামে এক কর্মশালার সমাপনী অনুষ্ঠান শেষে এনআরসি নিয়ে সাংবাদিকদের করা প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব বলেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আসাম সরকার তাদের এনআরসি‘র চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করেছে। আমরা আমাদের বর্ডারে বিশেষ নজরদারির ব্যবস্থা করতে বলেছি। বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক অবস্থা এমন পর্যায়ে এখানে গরিব লোকদের করে খাওয়া মতো সংস্থান আছে। তবে কিছু শিক্ষিত লোকের কাজের অভাব রয়েছে।

বাংলাদেশিরা ভারতে প্রবেশ করেছে- বিজেপি নেতা অমিত শাহ‘র এমন অভিযোগ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ভারতের এমন অভিযোগ সত্য নয়। ১৯৪৭, ১৯৭১ এবং ১৯৭৫-এর পর কোনো বাংলাদেশি ভারতে যাননি। ওই সময় যারা গেছেন তারা বিশেষ কারণে গেছেন। রাজনীতিবিদরা এমন বক্তব্য দেন, এসব তার কাছ থেকেই জানা উচিত।কেন তিনি এমন বক্তব্য দেন।

রোহিঙ্গা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, রোহিঙ্গা ক্যাম্পে এনজিওগুলো রাজনীতি রাষ্ট্ররিবোধী কর্মকাণ্ডে করলে তাদের প্রত্যাহার করে নেওয়া হবে। এ রকম ৪১ এনজিওকে এর মধ্যে তুলে নেওয়া হয়েছে। এ আরেকটাকে প্রত্যাহার করা হবে। আমরা রোহিঙ্গা খবর নিচ্ছি, জাতীয় আইডি কার্ড ছাড়া কিভাবে রোহিঙ্গারা সিম কার্ড পেল। যারা এর সঙ্গে তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

পাঠকের মন্তব্য