আইওআরএর ভাইস প্রেসিডেন্ট হচ্ছে বাংলাদেশ

আইওআরএর ভাইস প্রেসিডেন্ট হচ্ছে বাংলাদেশ

আইওআরএর ভাইস প্রেসিডেন্ট হচ্ছে বাংলাদেশ

সমুদ্র অর্থনীতি বিষয়ের ওপর ২২ জাতির ইন্ডিয়ান ওশেন রিম অ্যাসোসিয়েনের (আইওআরএ) মন্ত্রীপর্যায়ের বৈঠক ঢাকায় অনুষ্ঠিত হবে। এবারের সম্মেলনে বাংলাদেশ আইওআরএর ভাইস প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব নিতে যাচ্ছে।

জানা গেছে, গুরুত্বপূর্ণ এই সম্মেলনে অংশ নিতে বিশ্বের ৩১ দেশের মন্ত্রী-উপমন্ত্রীসহ উচ্চপর্যায়ের শতাধিক প্রতিনিধি ঢাকা আসছেন। রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে বুধবার থেকে দু’দিনব্যাপী ‘ব্লু ইকোনমি মিনিস্টারিয়াল কনফারেন্স’অনুষ্ঠিত হবে। আইওআরএর এটি তৃতীয় আঞ্চলিক সম্মেলন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সম্মেলন উদ্বোধন করার কথা রয়েছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মেরিটাইম ইউনিট সূত্র জানিয়েছে, বাংলাদেশ চলতি বছর আইওআরএর ভাইস প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব নেবে। পরবর্তী মেয়াদে অর্থাৎ ২০২১ থেকে ২০২৩ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশ সংস্থাটির প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালন করবে। বর্তমানে সংযুক্ত আরব আমিরাত আইওআরএর ভাইস-প্রেসিডেন্ট ও দক্ষিণ আফ্রিকা প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালন করছে।

ইউনিটের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এতে ২২টি সদস্য রাষ্ট্র ও ৯টি ডায়ালগ পার্টনারসহ ৩১টি রাষ্ট্রের প্রতিনিধিরা যোগ দেবেন। এখন পর্যন্ত সাত দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীসহ ১২ মন্ত্রীর যোগ দেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী মারিসে পেয়েইন, ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাভেদ জারিফ, শ্রীলংকার পররাষ্ট্রমন্ত্রী তিলক মারাপানা, সিসিলিসের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বেরি ফর, কেনিয়ার কৃষি ও মৎস্যমন্ত্রী মাওয়াংগী কিউনজুরি, মরিশাসের সমুদ্র অর্থনীতি বিষয়ক মন্ত্রী প্রেমদূত কুঞ্জ, মাদাগাস্কারের কৃষিমন্ত্রী রানা রিভেলো ফানোমেজানসোয়া-লুসিয়ান, মালদ্বীপের মেরিন রিসোর্স অ্যান্ড অ্যাগ্রিকালচার মন্ত্রী হাসান রশিদ, দক্ষিণ আফ্রিকার পরিবেশ বন ও মৎস্যমন্ত্রী মাখোৎসু মাগদিলিন-সাথিউ, সোমালিয়ার পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আবদুল কাদির আহমেদ খায়ের আবদি, থাইল্যান্ডের পররাষ্ট্র বিষয়ক উপদেষ্টা (ডেপুটি মিনিস্টার) পর্নপিমল কাঞ্চানালাক, কমোরসের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সাউফ মোহাম্মেদ আল আমিন।

ঢাকায় অনুষ্ঠেয় সম্মেলনের উদ্বোধনীতে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ছাড়াও দক্ষিণ আফ্রিকার পরিবেশ, বন ও মৎস্যবিষয়ক উপমন্ত্রী, আন্তর্জাতিক সিবেড অথরিটির মহাসচিব ও আইওআরএর মহাসচিব বক্তব্য রাখবেন। এরপর আইওআরএর মন্ত্রী ও প্রতিনিধি প্রধানরা সম্মিলিতভাবে প্রধানমন্ত্রীর সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন।

পাঠকের মন্তব্য