রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে রাখা যাবে না : রওশন এরশাদ

রওশন এরশাদ

রওশন এরশাদ

জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা বেগম রওশন এরশাদ বলেছন, রোহিঙ্গা নিয়ে আমাদের সমস্যা হচ্ছে। রোহিঙ্গাদের রাখা যাবে না। প্রায় ১২-১৪ লাখ রোহিঙ্গার দেখাশুনা আমরা কবর কিভাবে। তারা চোরাচালান করছে, মাদক বিক্রি করছে। ইয়াবা বিক্রি করছে। পাসপোর্ট করে বিদেশ যাচ্ছে। রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে রাখা যাবে না। তাহলে বাংলাদেশ ক্ষতিগ্রস্থ হবে। যদিও মানবিক কারণ তাদের আশ্রয় দেয়া হয়েছে এখন সময় হয়েছে তাদের চলে যাওয়ার। রোহিঙ্গাদের মিয়ানমার ফিরে যেতে হবে। যেমন করেই হোক তাদের ফেরত পাঠাতে হবে।
 
আজ স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত জাতীয় সংসদের চতুর্থ অধিবেশনের সমাপনী বক্তব্যে একথা বলেন তিনি। 
 
এসময় রওশন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর ভূয়সী প্রশংসা করে বলেন, তার মৃত্যুতে বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা ব্যাহত হয়। কিশোর গ্যাং সম্পর্কে তিনি বলেন, এরা সন্ত্রাসী হচ্ছে। গুন্ডামি করছে। মাদক নিচ্ছে। মাদক এখানে সেখানে পৌঁছে দিচ্ছে। কিশোররা যদি গ্যাং এ রুপান্তরিত হয় তাহলে আমাদের ভবিষ্যত অন্ধকার। যারা শিক্ষা থেকে ঝরে পড়ছে তাদের আবার স্কুলে পাঠানোর ব্যবস্থা করতে হবে। আরেকটি কাজ করতে হবে সেটা হল শিশুশ্রম বন্ধ করতে হবে। পরিবার ছাড়া এই গ্যাং কালচার দুর হবে না। এ ব্যাপারে প্রথমেই পিতামাতাদের সচেতন হতে হবে। খেলাধুলার প্রতি যদি তাদের আনতে পারা যায় তাহলে তাদের এসব বন্ধ হবে।

পাঠকের মন্তব্য