১৬ কোটি ৬১ লাখ মেরে দিলেন ঠিকাদার ও সিভিল সার্জন

১৬ কোটি ৬১ লাখ মেরে দিলেন ঠিকাদার ও সিভিল সার্জন

১৬ কোটি ৬১ লাখ মেরে দিলেন ঠিকাদার ও সিভিল সার্জন

সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের যন্ত্রপাতি কেনার নামে ১৬ কোটি ৬১ লাখ ৩১ হাজার ৮২৭ টাকা লোপাটের ঘটনায় দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) মামলায় ঠিকাদার ও সহযোগীদের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেছেন আদালত।

সোমবার (১৬ সেপ্টেম্বর) আদালতে শুনানি শেষে আসামিদের জামিন নামঞ্জুর করেন খুলনা মহানগর সিনিয়র স্পেশাল আদালতের বিচারক শহীদুল ইসলাম। 

মামলায় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মেসার্স বেঙ্গল সায়েন্টিফিক অ্যান্ড সার্জিকাল কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক জাহের উদ্দিন সরকার, তার বাবা আব্দুর সাত্তার সরকার, ভগ্নিপতি আসাদুর রহমান ও নিয়োগকৃত প্রতিনিধি কাজী আবু বকর সিদ্দিক খুলনার কারাগারে রয়েছেন। 

এর আগে ৯ সেপ্টেম্বর একই আদালতে তাদের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন বিচারক।

এই দিন ওই মামলার প্রধান আসামি সাতক্ষীরার সাবেক সিভিল সার্জন ডা. তৌহিদুর রহমানের জামিন আবেদন বাতিল করে তাকেও কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন সাতক্ষীরার জেলা ও দায়রা জজ আদালত। বর্তমানে তিনি সাতক্ষীরার কারাগারে রয়েছেন।

সোমবার জামিন শুনানির দিনে দ্বিতীয়বারের মতো তাদের জামিন নামঞ্জুর করেন খুলনা মহানগর সিনিয়র স্পেশাল আদালত।

দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) খুলনার পিপি অ্যাডভোকেট খন্দকার মজিবর রহমান জানান, কারাগারে বন্দি থাকা ঠিকাদার জাহের উদ্দিন সরকারসহ চারজনের জামিন নামঞ্জুর করেছেন আদালত। একই সঙ্গে মামলার নথিপত্র সাতক্ষীরা জেলা জজ আদালতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক।

তিনি আরও জানান, আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে চিকিৎসার যন্ত্রপাতি না কিনে ২০১৭-১৮ অর্থবছরে ১৬ কোটি ৬১ লাখ ৩১ হাজার ৮২৭ টাকা লোপাট করেছেন। এ ঘটনায় ৯ জুলাই দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনে মামলা করে দুদক। 

মামলায় সাতক্ষীরার সাবেক সিভিল সার্জন ডা. তওহীদুর রহমান, ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মেসার্স বেঙ্গল সায়েন্টিফিক অ্যান্ড সার্জিকাল কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক জাহের উদ্দিন সরকারসহ ৯ জনকে আসামি করা হয়েছে।

পাঠকের মন্তব্য