শেখ হাসিনার উন্নয়নের ট্রেনে দুর্নীতিবাজদের জায়গা নেই  

শেখ হাসিনার উন্নয়নের ট্রেনে দুর্নীতিবাজদের জায়গা নেই  

শেখ হাসিনার উন্নয়নের ট্রেনে দুর্নীতিবাজদের জায়গা নেই  

শেখ হাসিনার উন্নয়নের ট্রেনে ঢুকে পড়া দুর্নীতিবাজ ভূতদের ধ্বংস এবং পুলিশে ভেতরের কালো বিড়ালদের তাড়াতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন ১৪ দলীয় জোটের অন্যতম শরিক জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু।

মঙ্গলবার দলের পক্ষ থেকে রাজধানীতে আয়োজিত এক সমাবেশে তিনি এ মন্তব্য করেন। বর্তমান সরকারের চলমান দুর্নীতি ও অনিয়মের বিরুদ্ধে অভিযানের মধ্যেই এমন মন্তব্য বেরিয়ে এলো জাসদ সভাপতির পক্ষ থেকে।

সুশাসনের জন্য রাজনৈতিক চুক্তির দাবিতে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদের ১০ দিনব্যাপী ধারাবাহিক কর্মসূচীর অংশ হিসাবে মৎস ভবন মোড়ে ঢাকা মহানগর জাসদ কর্তৃক ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনার বরাবর স্মারকলিপি পেশের পূর্বে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ইনু। এসময় দলের কেন্দ্রীয় নেতারাও অংশ নেন।

ইনু বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের ট্রেনে কোন দুর্নীতিবাজদের জায়গা নেই। পুলিশ প্রশাসনের দায়িত্ব উন্নয়নের ট্রেন থেকে সমাজের ভুত দুর্নীতিবাজদের ধরে কারাগারে নিক্ষেপ করা। তিনি বলেন, যে জার্সিই গায়ে থাকুক পুলিশ কোন দুর্নীতিবাজকে রেহাই দেবে না। সব দুর্নীতিবাজদেরই জায়গা হবে খালেদার পাশে কারাগারে। নজর রাখতে হবে দুর্নীতিবাজরা পালিয়ে যেন বিদেশে থাকা পলাতক সাজাপ্রাপ্ত তারেকের কাছে না পৌঁছায়।

দুর্নীতিবাজরা রাজনৈতিক দলের কিছু নেতা ও পুলিশ প্রশাসনের ভেতরে লুকিয়ে থাকা কিছু কালো বিড়ালের অশুভ সংযোগে শেখ হাসিনার উন্নয়নের ট্রেনে ঢুকে পড়ে এমন মন্তব্য করে সাবে তথ্য মন্ত্রী বলেন, এদের এ অশুভ সংযোগ ছিন্ন করতে হবে। পুলিশ প্রশাসনের ভেতরে কালো বিড়াল লুকিয়ে থাকলে সমাজের ভূত দুর্নীতিবাজদের ধ্বংস করা যাবে না, চলমান শুদ্ধি অভিযানও সফল হবে না।

সমাজের ভূত দুর্নীতিবাজদের ধ্বংসের পাশাপাশি পুলিশ প্রশাসনের ভেতর লুকোনো কালো বিড়াল-শর্ষের ভূতও তাড়াতে হবে একথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, পুলিশকে দল-মুখ না দেখে অপরাধ দমনে কঠোর হওয়া, মাদক-দুর্নীতি েেথকে দূরে থাকা এবং হয়রানী নির্যাতনের বদলে জনগণের সেবক হতে হবে।

ঢাকা মহানগর জাসদের যুগ্ম সমন্বয়ক নুরুল আখতারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, জাসদের কার্যকরী সভাপতি এড. রবিউল আলম, ঢাকা মহানগর জাসদের সমন্বয়ক ও জাসদ সহ-সভাপতি মীর হোসাইন আখতার, স্থায়ী কমিটির সদস্য এড. হাবিবুর রহমান শওকত, সফি উদ্দিন মোল্লা, শহীদুল ইসলাম, শওকত রায়হান, হাজী ইদ্রিস ব্যাপারী, মাইনুর রহমান ও মোঃ নুরুন্নবী, ইদ্রিস আলী, সাইফুজ্জামান বাদশা, শরিফুল কবির স্বপন, মফিজুর রহমান বাবুল, কাজী সিদ্দিকুর রহমান, রফিকুল ইসলাম রাজা প্রমুখ।
 
সমাবেশ শেষে ঢাকা মহানগর জাসদের একটি প্রতিনিধি দল ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনারের কাছে স্মারকলিপি প্রদান করে।

পাঠকের মন্তব্য