‘মান্না জন্মোৎসব-২০২০’ আয়োজন করছে এমএআর ক্রিয়েশন

‘মান্না জন্মোৎসব-২০২০’ আয়োজন করছে এমএআর ক্রিয়েশন

‘মান্না জন্মোৎসব-২০২০’ আয়োজন করছে এমএআর ক্রিয়েশন

অমর নায়ক সালমান শাহকে নিয়ে সাত দিনব্যাপী জন্মোৎসব শেষ হলো বৃহস্পতিবার। জমকালো এই অনুষ্ঠানে প্রতিদিনই দেখানো হয়েছে তার অভিনীত ছবি। এবার ঢাকাই চলচ্চিত্রের প্রয়াত জনপ্রিয় নায়ক মান্নাকে নিয়ে এলো জমকালো জন্মোৎসব আয়োজনের।

‘মান্না জন্মোৎসব-২০২০’ নামে এই আয়োজনটি করছে এমএআর ক্রিয়েশন।

২০২০ সালের ১৪ এপ্রিল নায়ক মান্নার জন্মদিনে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে। সেখানে মান্নার স্ত্রী শেলি মান্না ছাড়াও উপস্থিত থাকবেন টালিউডের জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। থাকবেন আরও অনেক চিত্রতারকা। মান্নার স্ত্রী শেলি মান্না বলেন, মান্নার প্রকৃত জন্মদিন ১৪ এপ্রিল। কিন্তু তার পাসপোর্টে দেয়া ১ জানুয়ারি। ইন্টারনেট এবং উইকিপিডিয়ায় আছে ৬ ডিসেম্বর। যেহেতু তার প্রকৃত জন্মদিন ১৪ এপ্রিল তাই ওই তারিখেই ‘মান্নার জন্মোৎসব’ করা হচ্ছে। এতে আমার সম্মতি রয়েছে।

সাত দিনব্যাপী এই আয়োজনে নায়ক মান্না অভিনীত জনপ্রিয় সাতটি সিনেমা প্রদর্শিত হবে। দেশের একাধিক সিনেমা হলে সাত দিনব্যাপী একযোগে ‘মান্না জন্মোৎসব-২০২০’ পালিত হবে। এমনটাই জানিয়েছেন এমএআর ক্রিয়েশন।

তারা জানায়, ডিপজলের একটি সিনেমা হলসহ একাধিক হল, মান্নার জন্মস্থান টাঙ্গাইলের একটি হল চূড়ান্ত হয়েছে। এছাড়া বগুড়া, বরিশাল, ময়মনসিংহ, রংপুরে বাকিগুলো শিগগির চূড়ান্ত হবে বলে জানা যায়। মান্নার জন্মোৎসবে হাজির থাকার কথা জানিয়েছেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। তিনি বলেন, ‘মান্না ভাইয়ের জন্মোৎসব উপলক্ষে তার চলচ্চিত্র নিয়ে সাতদিনের প্রদর্শনী, সেখানে আমি উপস্থিত থাকবো। এটা আমাদের কাছে খুবই আনন্দের, খুবই গর্বের।

তিনি বলেন, মান্না ভাইয়ের সঙ্গে আমি অনেক চলচ্চিত্রে কাজ করেছি। তিনি বাংলা চলচ্চিত্রের জন্য অনেক কাজ করেছেন। চলচ্চিত্র কীভাবে ভালো চলবে, দর্শক কোন ছবিটি গ্রহণ করবে তাই করতেন তিনি।’

ঋতুপর্ণা এই উৎসবের আয়োজকদের ধন্যবাদ দিয়ে বলেন, উৎসবের মাধ্যমেই মান্না ভাইকে আমরা যেন সবসময় সেলিব্রেট করি। মান্না ভাই বাংলা সিনেমা ইন্ডস্ট্রির ধারক-বাহক ছিলেন। মান্না উৎসবে সকলে থাকুন, আমাদের সঙ্গে সমস্ত ছবি দেখুন, আমাদের খুব ভালো লাগবে।

২০০৮ সালের ১৭ ফেব্রুয়ারি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মাত্র ৪৪ বছর বয়সে মৃত্যু হয় নায়ক মান্নার। মান্না অভিনীত উল্লেখযোগ্য ছবিগুলোর মধ্যে রয়েছে আম্মাজান, দাঙ্গা, মনের সাথে যুদ্ধ, লাল বাদশা, বীর সৈনিক, সিটি টেরর, মায়ের মর্যাদা, বিদ্রোহী সালাউদ্দিন, কাবলীওয়ালা, মেশিনম্যান ইত্যাদি।

পাঠকের মন্তব্য