ধৈর্য ধরলেই দেখতে পাবেন : র‌্যাবের মহাপরিচালক

ধৈর্য ধরলেই দেখতে পাবেন : র‌্যাবের মহাপরিচালক

ধৈর্য ধরলেই দেখতে পাবেন : র‌্যাবের মহাপরিচালক

ক্যাসিনোর ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে যুবলীগ নেতা সম্রাট গ্রেপ্তার হবে কিনা সেটি ধৈর্য ধরলে জানা যাবে বলে জানিয়েছেন র‌্যাবের মহাপরিচালক (ডিজি) বেনজীর আহমেদ।

শুক্রবার সকালে রাজধানীর বনানী দুর্গাপূজার মণ্ডপের নিরাপত্তা ব্যবস্থা পর্যবেক্ষণে এসে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

র‌্যাব ডিজি বলেন, শুদ্ধি অভিযানে কারা গ্রেপ্তার হবে, কারা গ্রেপ্তার হবে না সেটা আমাদের দেখার বিষয় না। যাদের জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া যাবে, তাদের গ্রেপ্তার করা হবে। সম্রাট এখন কোথায় সাংবাদিকদের এমন এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমি সুনির্দিষ্টভাবে কারও নাম বলব না। শুধু বলতে চাই আপনারা ধৈর্য ধরলেই দেখতে পাবেন। এর বাইরে এ বিষয়ে মন্তব্য করতে চাই না।

সাতটি ম্যান্ডেট নিয়ে কাজ করছি উল্লেখ করে বেনজীর আহমেদ বলেন, আমাদের সর্বশেষ ম্যান্ডেট হচ্ছে সরকার যখন যা নির্দেশ দেবে তাই করব। সুতরাং সরকার নির্দেশিত না হলে, সাধারণত আমরা ম্যান্ডেটের বাইরে গিয়ে কাজ করি না।

বেনজীর আহমেদ বলেন, আপনারা নিশ্চয়ই জানেন, এবার প্রধানমন্ত্রীর নির্বাচনী ইশতেহারে কিন্তু দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি ঘোষণা করার কথা বলেছেন। চলমান দুর্নীতিবিরোধী বা শুদ্ধি অভিযান অনেক বড় একটি বিষয়। এই অভিযানের সঙ্গে শুধুমাত্র র‌্যাব ফোর্সেস জড়িত না। আর এই অভিযানে র‌্যাব লিড এজেন্সি নয়। আমরা সহযোগী প্রতিষ্ঠান, আমরা সরকারের নির্দেশে কাজ করছি।

পূজার নিরাপত্তা বিষয়ে তিনি বলেন, ‘বর্তমান সরকার ২০০৯ সালে যখন প্রথমবার ক্ষমতায় আসে তখন সারা দেশে প্রায় ১১ হাজার পূজামণ্ডপ সাজানো হতো। হিন্দু সম্প্রদায়ের যে কয়টা পূজা হয় তার মধ্যে দুর্গাপূজার খরচ অনেক বেশি। তারপরও সারা দেশে এবার প্রায় ৩১ হাজার ৮০০ পূজা মণ্ডপ করা হয়েছে। আর এতেই বোঝা যাচ্ছে দেশের মানুষের অর্থনৈতিক উন্নতি হচ্ছে।

তিনি বলেন, আমাদের জনবল কম, সারা দেশে আমাদের ক্যাপাসিটি নেই, তবুও আমরা সর্বোচ্চ দিয়ে নিরাপত্তা বজায় রাখার চেষ্টা করব। দেশের গুরুত্বপূর্ণ পূজামণ্ডপগুলোতে সার্বক্ষণিক আমাদের নজরদারি থাকবে। র‌্যাব প্রিভেন্টিভ পেট্রল এবং গোয়েন্দা তথ্যের মাধ্যমেও মনিটরিং করা হবে। সেই সঙ্গে ডগ স্কোয়াডের মাধ্যমে নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হবে বলেও জানান তিনি।

পাঠকের মন্তব্য