আবারও জয় শ্রীরাম না বলায় হেনস্থার মুখে মুসলিম দম্পতি 

আবারও জয় শ্রীরাম না বলায় হেনস্থার মুখে মুসলিম দম্পতি 

আবারও জয় শ্রীরাম না বলায় হেনস্থার মুখে মুসলিম দম্পতি 

ফের জয় শ্রীরাম না বলায় হেনস্থার মুখে পড়তে হল এক মুসলিম দম্পতিকে৷ ভারতের রাজস্থানের অলওয়ারে এই ঘটনা ঘটেছে৷ শুধু হেনস্থাই নয়, ওই মহিলার সামনে রীতিমত অশ্লীল অঙ্গভঙ্গী করা হয় বলেও অভিযোগ৷

স্থানীয় সংবাদপত্রে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী শনিবার ওই দম্পতি অলওয়ার বাসস্ট্যাণ্ডে দাঁড়িয়ে ছিলেন৷ তখনই বাইকে করে দুই যুবক আসে তাদের সামনে৷ প্রথম থেকেই অশ্রাব্য ভাষায় কথা বলতে থাকে ওই দম্পতির সঙ্গে৷ জোর করা হয় জয় শ্রীরাম বলার জন্য৷ দাঁড়িয়ে থাকা মহিলার সঙ্গে অভব্য আচরণ করা হয় বলেও অভিযোগ৷

ওই দুই যুবকের পরিচয় বের করে তাদের গ্রেফতার করেছে পুলিশ৷ ধৃতদের নাম বংশ ভরদ্বাজ (২৩) ও সুরেন্দ্র মোহন ভাটিয়া (৩২)৷ অলওয়ার পুলিশ এদের গ্রেফতার করে৷ আদালতে তোলা হলে ১৮ই অক্টোবর পর্যন্ত এদের বিচারবিভাগীয় হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়৷ এদের শারীরিক পরীক্ষাও করা হয়৷ দেখা গিয়েছে ওই ঘটনা ঘটানোর সময় ভাটিয়া মদ্যপ অবস্থায় ছিল৷

ধৃতদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩২৩, ৩৫৪এ, ৩৮৬, ২৯৫ ও ৫০৯ ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে৷ জোর করে জয় শ্রী রাম বলানো নিয়ে একাধিক ঘটনা ঘটেছে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে৷ জুলাই মাসেই ঝাড়খন্ডের মন্ত্রী এক মুসলিম বিধায়ককে ‘জয় শ্রীরাম’ উচ্চারণে বারবার জোর করেন৷ সেখানে উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিকরাও৷ এবং ক্যামেরায় মুহূর্তে সেই বিষয়টি বন্দি হয়ে যায়৷

সেই ভিডিও এবং অন্যান্য সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত খবর থেকে জানা যায়, রাজ্যের নগরোন্নয়ন মন্ত্রী সি পি সিং এবং এক কংগ্রেস বিধায়ক ইরফান আনসারি বিধানসভার বাইরে দাঁড়িয়েছিলেন৷ তাঁদের ঘিরেছিল ক্যামেরাম্যান৷ ভিডিওতে দেখা যায় আনসারির কাঁধে হাত রেখেছেন সি পি সিং এবং তাঁকে বলতে বলছেন, একবার জোর সে জয় শ্রীরাম বলিয়ে (জোরে জয় শ্রীরাম বলুন)৷ ওই বিধায়কের হাতে লাল সুতো দেখা যায়, যা তিনি ক্যামেরার সামনে দেখানও (সাধারণত হিন্দু পুরোহিতদের হাতে এটি দেখা যায়)৷

পাঠকের মন্তব্য