বিজয়া দশমী আজ : বিসর্জনে বিদায় মা দুর্গার

বিজয়া দশমী আজ : বিসর্জনে বিদায় মা দুর্গার

বিজয়া দশমী আজ : বিসর্জনে বিদায় মা দুর্গার

বিজয়া দশমী আজ। দশ দিন ব্যাপী শারদীয় দুর্গাপূজার শেষ দিন। এ দিনে দুর্গা দেবী বাবার বাড়ি থেকে কৈলাসে তার শ্বশুরবাড়িতে চলে যাবে। ভোর থেকেই দুর্গা দেবীকে বিদায় জানাতে মন্দিরে মন্দিরে চলে বিসর্জনের আয়োজন। মন্ত্র পাঠ করতে করতে ঢাক-ঢোল বাজিয়ে মণ্ডপ প্রদক্ষিণ করে সুতা কাটার মাধ্যমে দশভূজা দুর্গাকে এক বছরের জন্য বিদায় জানায় সনাতন ধর্মালম্বীরা।

ঢাকেশ্বরী মন্দির বাদে ঢাকার ২৩৬ টি দুর্গামণ্ডপের প্রায় সবগুলি মণ্ডপের প্রতিমা আজকের এই দিনে ভাসিয়ে দিয়ে শারদীয় দুর্গাপূজার আনুষ্ঠানিক সমাপ্তি হবে ঢাকাসহ সারা দেশে।

বিসর্জন শেষে ঢাকেশ্বরী মন্দিরের সামনে ট্রাক ও পিকআপ ভ্যানে করে প্রতিমা বহনকারী পরিবহনগুলো জড় হতে থাকে সদরঘাট সোয়ারী ঘাটে সম্মিলিত ভাবে ভাসানোর উদ্দেশ্যে। এই সম্মিলিত প্রতিমা ভাসান শোভাযাত্রাটি করা হয় জাতীয় পূজা উদযাপন কমিটির তত্বাবধানে।

সকাল থেকে প্রতিমা ভাসানোর জন্য ঢাকেশ্বরী মন্দিরের সামনে প্রায় ১০০ মণ্ডপের প্রতিমা বহনকারী পরিবহন সিরিয়ালে অনুযায়ী দাঁড়ায়। তারপর বিকেল চারটায় সেখান থেকে রওনা হয় সোয়ারী ঘাটের উদ্দেশ্যে। ঢাকেশ্বরী মন্দির থেকে পলাশী মোড় হয়ে দোয়েল চত্ত্বর হয়ে নগরভবনের সামনে দিয়ে গুলিস্তান মোড় ধরে নবাবপুর রোড হয়ে পাটুয়াটুলি সোয়ারী ঘাটে বুড়িগঙ্গা নদীতে প্রতিমা ভাসিয়ে দিয়ে দুর্গাপূজার আনুষ্ঠানিক সমাপ্তি হয় এবছরের মতো। সুবিশাল ও বর্ণাঢ্য এই ভাসান শোভাযাত্রাটি নির্বিঘ্ন করতে ঢাকেশ্বরী মন্দির থেকে সোয়ারী ঘাট পর্যন্ত চোখে পরে কড়া পুলিশি পাহারাসহ অন্যান্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সতর্ক অবস্থান।

বিসর্জনের পরে সনাতন ধর্মাবলম্বীরা সিদুর বা রঙ খেলে দিনটি উদযাপন করেন। ভাসান শেষে মিষ্টিমুখ করে তারা ঘরে ফেরেন আগামী দুর্গাপূজার অপেক্ষায়।

প্রতিমা বিসর্জন শোভাযাত্রায় আসা পলি সাহা জানান, আজ আমাদের দশ দিন ব্যাপী দুর্গা উৎসবের শেষ দিন। মন্ত্রপাঠে মন্দির প্রদক্ষিণের পরে সুতা কাটার মাধ্যমেই আমাদের মা দুর্গা বিদায় নিয়েছেন এই মর্ত্য থেকে। বিদায় লগ্নে একটু খারাপ লাগলেও আমরা এই বিদায় ক্ষণটি উৎসবমুখর পরিবেশে পালন করি। আমরা সিদুর খেলে মিষ্টিমুখ করে দেবী মাকে বিদায় জানাই। কারণ বিদায় বেলায় মন খারাপ করতে নেই।

প্রতিমা বিসর্জন শেষে ভাসানোর উদ্দেশ্যে গাড়িতে তোলার সময় মায়ের বিদায়ে ব্যথিত সনাতন ধর্মাবলম্বী পুরোহিতদের কাঁদতে দেখাও যায়।

ঢাকেশ্বরী মন্দিরের পুরোহিত পংকজ মহারাজ জানান, শুধু ঢাকেশ্বরী মন্দির বাদে ঢাকার প্রতিটি মণ্ডপের প্রতিমা আজ ভাসানো হবে। এই মন্দিরের প্রতিমা, ঐতিহ্য অনুযায়ী পরের বছর পঞ্চমীর দিন মন্দিরের নিজস্ব জলাশয়ে ভাসিয়ে নতুন প্রতিমা স্থাপন করা হবে মণ্ডপে।
করে। মিষ্টি,মোন্ডা ও রান্না করা মিষ্টান্ন পাঠায় একে অপরের বাড়িতে। এভাবেই বিদায়ের কষ্টকে আনন্দে রুপান্তর করে সনাতন ধর্মাবলম্বীরা অপেক্ষা করেন আগামী শারদীয় দুর্গাপূজা বা উৎসবের।

পাঠকের মন্তব্য