আবরার হত্যাকাণ্ড : শের-ই-বাংলা হল প্রভোস্টের পদত্যাগ

আবরার হত্যাকাণ্ড : শের-ই-বাংলা হল প্রভোস্টের পদত্যাগ

আবরার হত্যাকাণ্ড : শের-ই-বাংলা হল প্রভোস্টের পদত্যাগ

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে অবশেষে পদত্যাগ করেছেন বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শের-ই-বাংলা হলের প্রভোস্ট মো. জাফর ইকবাল খান।
আজ বুধবার দুপুর পৌনে তিনটার দিকে বুয়েট শিক্ষক সমিতির সভাপতি এ কে এম মাসুদ এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, সকালেই প্রভোস্ট ড. জাফর ইকবাল পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন।

উল্লেখ্য, রোববার রাতে আবরার ফাহাদ হত্যার ঘটনার পর থেকেই ফুসে উঠেছে বুয়েটসহ সারাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। এরই ধারাবাহিকতায় শিক্ষার্থীদের চাপের মুখে প্রভোস্ট পদত্যাগ করতে বাধ্য হলেন।

এদিকে সতীর্থ আবরার হত্যাকাণ্ডের বিচার দাবিতে আন্দোলন করছেন বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালেয় (বুয়েট) শিক্ষাথীরা। আন্দোলনে ১০ দফা দাবি করেন তারা। তাদের ১০ দফা দাবির মধ্যে প্রভোস্টের পদত্যাগের দাবিও ছিল।

এর আগে রোববার রাতে আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। সোমবার ভোরে শের-ই-বাংলা হলের প্রথম ও দ্বিতীয় তলার সিঁড়ির মধ্যবর্তী জায়গায় আবরারের নিথর দেহ পাওয়া যায়। তার শরীরে অসংখ্য আঘাতের চিহ্ন ছিল।

আবরার ফাহাদ বুয়েটের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের (ইইই) বিভাগের লেভেল-২ এর টার্ম ১ এর ছাত্র ছিলেন। তিনি শের-ই-বাংলা হলের ১০১১ নম্বর কক্ষে থাকতেন। তার বাড়ি কুষ্টিয়া শহরে। কুষ্টিয়া জেলা স্কুলে তিনি স্কুলজীবন শেষ করে নটরডেম কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেন।

পাঠকের মন্তব্য