সেনাবাহিনীতে যোগ দেয়ার সুযোগ পাচ্ছেন সৌদির নারীরা

সেনাবাহিনীতে যোগ দেয়ার সুযোগ পাচ্ছেন সৌদির নারীরা

সেনাবাহিনীতে যোগ দেয়ার সুযোগ পাচ্ছেন সৌদির নারীরা

দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর সৌদি আরবের সেনাবাহিনীতে যোগ দেয়ার সুযোগ পাচ্ছেন দেশটির নারীরা। সেনাবাহিনীতে নারী সেনা নিয়োগে বুধবারই প্রথমবারের মতো বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে সৌদি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

‘দ্য এনলিস্টমেন্ট অব উইমেন ফর মিলিটারি জবস’ শীর্ষক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে- সেনা, কর্পোরাল বা সার্জেন্ট হিসেবে যোগ্য সৌদি নারীদের নিয়োগ দেয়া হবে। এছাড়া সৌদি রয়্যাল ল্যান্ড ফোর্সেস, রয়্যাল এয়ার ফোর্সেস, রয়্যাল নেভি, রয়্যাল সৌদি এয়ার ডিফেন্স ও মেডিকেল সার্ভিসও তাদের জন্য উন্মুক্ত।

এক টুইট বার্তায় সৌদি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, এর মাধ্যমে নারীর ক্ষমতায়নে আরও এক ধাপ এগিয়ে যাবে সৌদি আরব। গত বছর নারীদের দেশের নিরাপত্তা বাহিনীগুলোতে যোগ দেয়ার অনুমতি দেয় সৌদি আরব।

দেশটির যুবরাজ মোহাম্মাদ বিন সালমান নারীর ক্ষমতায়নে যেসব পদক্ষেপ নিয়েছেন, এর মধ্যে রয়েছে নারীদের ড্রাইভিং লাইসেন্স দেয়া, পুরুষ অভিভাবক ছাড়াই তাদের বিদেশে ভ্রমণের অনুমতি, আবাসিক হোটেলে রুম ভাড়া নিতে পারার অনুমতি।

নারীর ক্ষমতায়নে এসব সিদ্ধান্ত নেয়ার মধ্যে লজেন আল-হাতলুলসহ বেশ কয়েকজন নারী অধিকারকর্মীকে গ্রেফতার করতেও দেখা গেছে সৌদি কর্তৃপক্ষকে। বিশ্বের অন্যতম তেলসমৃদ্ধ দেশ সৌদি আরব বেশ কয়েক বছর ধরে তাদের ভাবমূর্তি বিশ্ব দরবারে উজ্জ্বলের নানা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। সেই সঙ্গে অর্থনীতিতে তেল নির্ভরতা কমাতে পর্যটনশিল্প উন্নয়নেও অনেক পদক্ষেপ নিচ্ছে তারা। সৌদির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্র মতে, যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের ‘ভিশন ২০৩০’ নামের সংস্কার কর্মসূচির আওতায় এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

ফলে এখন থেকে সেনাহিনীর বিভিন্ন শাখায় কনস্টেবল থেকে শীর্ষ পর্যায়ের কর্মকর্তা হিসেবে যোগ দিতে পারবেন নারীরা। গত বছর সৌদি সরকার দেশের নিরাপত্তা বাহিনীর মাদকবিরোধী দফতর, অপরাধ তদন্ত এবং জেলের সুপারভিশনের মতো প্রশাসনিক শাখায় কাজের সুযোগ দেয়া হয় নারীদের।

গত সপ্তাহেই সৌদি সরকার ঘোষণা করেছে, বিবাহ-সম্পর্ক ছাড়াও সৌদি আরবের হোটেলে একসঙ্গে থাকতে পারবেন বিদেশি নারী ও পুরুষ পর্যটকরা। কট্টর ইসলামপন্থী দেশে এটা এতদিন নিষিদ্ধ ছিল। কারণ সেখানে ‘বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক’ নিষিদ্ধ।

কিন্তু এবার পর্যটকদের টানতে নতুন সুবিধা চালু করা হয়েছে বলে জানা গেছে। কারণ অর্থনীতিকে আরও শক্ত করতে শুধু তেলের ওপর নির্ভর করা যথেষ্ট নয়। প্রয়োজন পর্যটনও।

কিন্তু শুধু বিদেশিদের জন্যই নয়, সৌদি মহিলাদের জন্যও শিথিল করা হয়েছে হোটেলে ওঠার নিয়ম। এখন থেকে শুধু নিজের পরিচয়পত্র দেখিয়েই হোটেলের রুম ভাড়া নিতে পারবেন তারা। পরিবারের কোনো পুরুষ সদস্যের অনুমতি নিতে হবে না, যা আগে বাধ্যতামূলক ছিল।

পাঠকের মন্তব্য