মদিনায় বাস দুর্ঘটনায় নিহতদের ১১ জনই বাংলাদেশি

মদিনায় বাস দুর্ঘটনায় নিহতদের ১১ জনই বাংলাদেশি

মদিনায় বাস দুর্ঘটনায় নিহতদের ১১ জনই বাংলাদেশি

সৌদি আরবের পবিত্র মদিনায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩৬ প্রবাসীর মধ্যে ১১ জনই বাংলাদেশি। আজ শনিবার বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেদ্দার শ্রম কল্যাণ উইংয়ের প্রথম সচিব কে এম সালাহউদ্দিন স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ১৬ অক্টোবর দেশটির স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় মদিনা থেকে ১৯০ কিলোমিটার দূরে আল আকহাল এলাকায় দুর্ঘটনার সময় বাসটিতে ৪০ জন যাত্রী ছিলেন। তাদের মধ্যে ৩৬ জন নিহত হন। বাকি চারজন আহত হন। আহতরা কেউ বাংলাদেশি নন।

নিহতদের দেহ পুড়ে ছাই হয়ে যায়। মদিনার আল-মিকাত হাসপাতালে নিহতদের ডিএনএনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। স্বজনরা যোগাযোগ করলে ওই হাসপাতাল এ শনাক্ত করার ব্যাপারে সহযোগিতা করবে বলে জানিয়েছে ওই হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগ। মরদেহের অবস্থা এতটাই খারাপ যে দেশে বহন করা সম্ভব নয় বলে ফরেনসিক বিভাগ জানিয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, বাসটি রিয়াদ হতে যাত্রা শুরু করেছিল। বাস কোম্পানি সূত্রে জানা যায় এর মধ্যে ১৩ জন ছিলেন বাংলাদেশি। তাদের মধ্যে কেবল নাম সংগ্রহ করা গেছে ১০ জনের। ওই ১৩ জনের মধ্যে দুজন মদিনায় নেমে যান। বাকি ১১ জন মক্কাগামী ওই বাসের যাত্রী ছিলেন বলে বাস কোম্পানিটি জানিয়েছে।

রিয়াদে বাংলাদেশ দূতাবাসের মাধ্যমে বাস কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে ওই ১৩ জন প্রবাসী বাংলাদেশির ইকামা নম্বর ও অন্যান্য তথ্য সংগ্রহ করার প্রচেষ্টা নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু বাস কর্তৃপক্ষ এ জাতীয় তথ্য প্রদান করতে পারেনি।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, সার্বিক অবস্থা পর্যালোচনায় দেখা যায় ডিএনএ পরীক্ষা ব্যতীত মৃত ব্যক্তিদের পূর্ণাঙ্গ তথ্য পাওয়ার সুযোগ নেই। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কনস্যুলেটের পক্ষ থেকে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ অব্যাহত আছে।

মদিনা ট্রাফিক বিভাগ থেকে জানা গেছে দুর্ঘটনাকবলিত বাসটির বীমা ছিল না। আর বাস কোম্পানী জানায় চালক ছিলেন সিরিয়ার নাগরিক। ফলে মৃত্যুজনিত কোন ধরনের ক্ষতিপুরণ পাওয়ার সম্ভাবনা নেই বলে শ্রম উইং বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়। ।

আ জ ম নাছির উদ্দিন বলেন, দলে কোন অপরাধী, মাদকাসক্ত, জুয়াড়ি কিংবা ক্যাসিনো ব্যবসায়ীর জায়গা যাতে না হয়। শুধু আওয়ামী লীগ নয় দলের যত অঙ্গ সংগঠন আছে প্রত্যেক সংগঠনেই এই ব্যবস্থা নিতে হবে। প্রধানমন্ত্রী মাদক, দুর্নীতি, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছেন। সেটা সবাইকে মাথায় রাখতে হবে।

পাঠকের মন্তব্য