বেশি ঘুমানোটাও স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর

বেশি ঘুমানোটাও স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর

বেশি ঘুমানোটাও স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর

শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্য ভালো রাখতে পর্যাপ্ত ঘুমের কোনো বিকল্প নেই। কিন্তু কম ঘুমানোর মতোই বেশি ঘুমানোটাও স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। আবার শৈশবে, কৈশোরে, তারুণ্যে, যৌবনে আর বার্ধক্যে ঘুমের চাহিদাও ভিন্ন ভিন্ন।

যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল স্লিপ ফাউন্ডেশনের পরামর্শপত্র অনুযায়ী ৬ থেকে ৯ বছর বয়সী শিশুদের রাতে অন্তত ৯-১১ ঘণ্টা ঘুমানো প্রয়োজন, তবে নিয়মিত ৭-৮ ঘণ্টা ঠিকঠাক ঘুমাতে পারলেও ওরা নিজেকে চালিয়ে নিতে পারে। ১০ থেকে ১৭ বছর বয়সীদের ৮-১০ ঘণ্টা ঘুম প্রয়োজন।

তবে কারও কারো নিয়মিত ৭ ঘণ্টা ঘুমালেও চলতে পারে। আর বয়ঃসন্ধির সময়টাতে অনেকেরই প্রায় ১১ ঘণ্টা ঘুমানো দরকার হতে পারে। কিন্তু ১১ ঘণ্টার চেয়ে বেশি ঘুমালে তা স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর হতে পারে।

আধুনিক গবেষণা অনুসারে দিনে দুইবার ঘুমালে স্বাস্থ্যের জন্য ভালো। দু’ধাপে ঘুমালে ব্রেন শক্তি বাড়ে। ফলে স্মৃতিশক্তি, বুদ্ধি এমনকী মনোযোগেরও উন্নতি ঘটে।

পাঠকের মন্তব্য